বিচারক অভিশংসন আইন মানি না: খালেদা

khaleda_zia

বিচারকদের অপসারণদের নামে অভিশংসন আইনের মাধ্যমে বিচারকদের স্বাধীনতা হরণ করা হয়েছে দাবি করে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বলেছেন, ‘বিচারক অভিশংসন আইন মানি না।’

আজ শনিবার বিকেলে জামালপুর জিলা স্কুল মাঠে ২০-দলীয় জোট আয়োজিত জনসভায় তিনি এ কথা বলেন।

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে ১৫টি মামলা করা হয়েছিল‑ দাবি করে খালেদা জিয়া বলেন, ‘আমার বিরুদ্ধে ৪/৫টা মামলা ছিল। পরবর্তীতে ক্ষমতায় এসে তারা নিজেদের সব মামলা প্রত্যাহার করে নিয়েছে। কিন্তু আমাদের একটা মামলাও প্রত্যাহার হয়নি। এতে বোঝা যায় বিচার বিভাগ মোটেও স্বাধীন নয়। সরকার যেভাবে বলে বিচারবিভাগ সেভাবেই কাজ করে।’

তিনি বলেন, ‘এখন বিচারকদের অপসারণের ক্ষমতা সংসদের হাতে দেওয়া হয়েছে। কিন্তু এই সরকার তো জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়নি। তারা কীভাবে বিচারক অপসারণের ক্ষমতা নেয়।’

বিএনপি চেয়ারপারসন বলেন, ‘বিচারকদের অপসারণদের নামে যে অভিশংসন আইন করা হয়েছে এর মাধ্যমে বিচারকদের ভয় দেখানো হবে। কথা মতো কাজ না করলে তাদের অপসারণ করা হবে।’

বিচারকরা এখন আর স্বাধীন নন‑ দাবি করে তিনি বলেন, ‘বিচারকরা এখন হাসিনার চাকরি করছেন। হাসিনার কথা মতো চললে তাদের চাকরি থাকবে, কথা মতো না চললে থাকবে না।’

সম্প্রতি প্রণীত জাতীয় সম্প্রচার নীতিমালা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘সরকার ক্ষমতা চিরস্থায়ী করতে সম্প্রচার নীতিমালা করেছে।’

সরকারকে অবৈধ দাবি করে তিনি বলেন, ‘এই সংসদ অবৈধ, সরকার অবৈধ। তাদের সব কাজকর্মও অবৈধ। হাসিনাকে বিদায় করতে হলে আন্দোলন করতে হবে।’