sentbe-top

উত্তরে আটক দ. কোরীয় যাজকের মুক্তি চেয়েছে সিউল

উত্তর কোরিয়ায় বন্দি একজন দক্ষিণ কোরীয় খ্রিষ্টান (ব্যাপটিস্ট) ধর্মযাজকের মুক্তির আবেদন পুনঃব্যক্ত করেছে সিউল। সম্প্রতি পিয়ংইয়ং এক মার্কিন নাগরিককে মুক্তি দিলে তারই প্রেক্ষিতে সিউল এ দাবি জানায়।

পিয়ংইয়ংয়ে একটি সংবাদ সম্মেলনে 'রাষ্ট্রবিরোধী' কর্মকাণ্ডের অভিযোগ স্বীকার করে উত্তর কোরিয়া সরকারের কাছে নিঃশর্ত ক্ষমা চাইছেন কিম জুং উওক। ছবিটি গত ফেব্রুয়ারীতে তোলা।
পিয়ংইয়ংয়ে একটি সংবাদ সম্মেলনে ‘রাষ্ট্রবিরোধী’ কর্মকাণ্ডের অভিযোগ স্বীকার করে উত্তর কোরিয়া সরকারের কাছে নিঃশর্ত ক্ষমা চাইছেন কিম জুং উওক। ছবিটি গত ফেব্রুয়ারীতে তোলা।

খবরে প্রকাশ, গত বছরের অক্টোবরে কিম জুং উওক (৫০) নামের ঐ ধর্মগুরু উত্তর কোরিয়ায় ভ্রমনে গেলে তাঁকে গুপ্তচরবৃত্তি ও পাতাল গির্জা স্থাপনের অভিযোগে গ্রেপ্তার করে আজীবন সশ্রম দণ্ড প্রদান করা হয়।

দ. কোরিয়ার ইউনিফিকেশন মন্ত্রণালয়ের একজন মুখপাত্র নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, “আমাদের সরকার উক্ত যাজককে মুক্তি দিয়ে দেশে ফেরত পাঠাতে আরও একবার আবেদন জানিয়েছে।” তিনি বলেন আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সহযোগিতা নিয়ে কিমকে তাঁর পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দিতে সিউলের প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তর এবং হোয়াইট হাউস ৫৬ বছর বয়সী মার্কিন নাগরিক জেফরি ফোলের মুক্তির বিষয়টি আনুষ্ঠানিক ঘোষণার মাধ্যমে নিশ্চিত করলেও উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রনিয়ন্ত্রিত গণমাধ্যম এ ব্যাপারে কিছু জানায় নি।

উল্লেখ্য, আরও অন্তত দুইজন মার্কিন নাগরিক বর্তমানে উত্তর কোরিয়ায় জিম্মি রয়েছেন।

sentbe-top