sentbe-top

ইয়েমেন থেকে বাংলাদেশিদের ফেরাতে সরকারের উদ্যোগ

Shahidul-Haqueইয়েমেনে গৃহযুদ্ধের মধ্যে আটকা পড়া বাংলাদেশিদের দেশে ফিরিয়ে আনতে আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা (আইওএম) ও ভারতের সঙ্গে সরকার আলোচনা শুরু করেছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্র সচিব মো. শহিদুল হক।

বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা জানান।

পররাষ্ট্র সচিব জানান, বাংলাদেশিদের ফিরিয়ে আনার জন্য বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে ইতোমধ্যে আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থার (আইওএম) সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে। এছাড়া নয়া দিল্লির সঙ্গেও আলোচনা হচ্ছে। ভারত সরকার জাহাজে করে ইয়েমেন থেকে তাদের নাগরিকদের ফিরিয়ে আনতে শুরু করেছে।

তিনি জানান, যুদ্ধ শুরুর আগে ইয়েমেনে দেড় থেকে তিন হাজার বাংলাদেশি ছিলেন বলে সরকারের হাতে তথ্য রয়েছে। এই বাংলাদেশিদের মধ্যে অধিকাংশই এডেন এলাকায় রয়েছে। এখনো ইয়েমেন সরকারের নিয়ন্ত্রণে থাকা ওই এলাকা ‘তুলনামূলকভাবে নিরাপদ এলাকা’ হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে।

শহিদুল হক বলেন, “ইয়েমেনে আমাদের কোনো মিশন নেই। কুয়েত হাই কমিশন থেকেই ইয়েমেনের দায়িত্ব দেওয়া আছে। কিন্তু দুই দেশের মধ্যে দূরত্ব অনেক বেশি।

তিনি বলেন, “আমরা ইয়েমেনে আমাদের কর্মকর্তাদের পাঠানোর চেষ্টা করেছি। কিন্তু এই পরিস্থিতিতে সেখানে যাওয়ার একমাত্র উপায় হলো সমুদ্রপথ। আমরা আশা করছি, আমরা লোক পাঠাতে পারব।”

সচিব বলেন, “ভারত নীতিগতভাবে রাজি হয়েছে। তারা বলেছে, নিজেদের সব নাগরিককে ফিরিয়ে আনার পর এবং আটকা পড়া বাংলাদেশিরা সনাক্ত হয়ে গেলে ভারত সহযোগিতা করতে পারে।”

মধ্যপ্রাচ্যে সৌদি আরবের প্রতিবেশী দেশ ইয়েমেনে গত কয়েক মাস ধরে অস্থিরতা চলছে। সম্প্রতি সেদেশের হুতি বিদ্রোহীরা রাজধানীর নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেয়। এ অবস্থায় বিমান চলাচল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় সেখান থেকে ফিরতে পারছেন না বাংলাদেশিরা। ইয়েমেনে বাংলাদেশের দূতাবাস না থাকায় তারা কোনো সহায়তাও পাচ্ছেন না।

sentbe-top