cosmetics-ad

ভূমিকম্পের কারনে নেপালে রাজনীতিতে ঐতিহাসিক সমঝোতা

spotlight-politics

নেপালে ভয়াবহ ভূমিকম্পের পর রাজনৈতিক দলগুলো নতুন সংবিধানের বিষয়ে ঐতিহাসিক সমঝোতায় পৌঁছেছে। এ নিয়ে বছরের পর বছর ধরে অচলাবস্থা চলছিল। নতুন সংবিধানের ফলে দেশটি আটটি প্রদেশে ভাগ হবে।

রাজনৈতিক দলগুলো আলাপ আলোচনা শেষে সোমবার রাতে সমঝোতার এ ঐতিহাসিক ঘোষণা দেয়। দেশটিতে মাত্র কয়েক সপ্তাহ আগে শক্তিশালী ভূমিকম্প আঘাত হানে। এতে হাজার হাজার লোকের প্রাণহানি ঘটে। আর এ বিষয়টি দীর্ঘদিনের অচলাবস্থা নিরসনে রাজনীতিবিদদের ওপর প্রবল চাপ তৈরি করেছে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

তথ্যমন্ত্রী মীনেন্দ্র রাইজাল বলেন, গত ২৫ এপ্রিলের ভয়াবহ ভূমিকম্পে ৮ হাজার ৭শরও বেশি লোক প্রাণ হারায়। ধ্বংস হয় পাঁচ লাখেরও বেশি বাড়িঘর। আর এ কারণেই রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বী দলগুলো একযোগে কাজ করতে অনুপ্রাণিত হয়।

নতুন এ সমঝোতার আওতায় নেপালে বর্তমান সরকার ব্যবস্থাই বহাল থাকবে। বর্তমান পদ্ধতিতে প্রধানমন্ত্রী নির্বাহী ক্ষমতার অধিকারী এবং প্রেসিডেন্ট একজন আনুষ্ঠানিক প্রধানমাত্র।
নতুন ফেডারেল কমিশন অভ্যন্তরীণ সীমানা নির্ধারণসহ পার্লামেন্টে অনুমোদনের জন্যে একটি প্রস্তাব জমা দেবে।

আইন প্রণয়নকারীরা বলছেন, চূড়ান্ত সংবিধানের খসড়া জুলাইয়ে প্রস্তুত হবে। এতে পার্লামেন্টের দুই তৃতীয়াংশ সংখ্যাগরিষ্ঠ সদস্যের অনুমোদন লাগবে।