cosmetics-ad

সৌদিতে লঘু অপরাধে জেল নয় প্রবাসীদের

soudi

সৌদিতে বসবাসরত প্রবাসীদের শুধু গুরুতর অপরাধের জন্যই কারাদণ্ড দেওয়া যাবে বলে ঘোষণা দিয়েছে দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। প্রবাসীদের ছোট কোনো অপরাধের জন্য শুধু অর্থদণ্ড দেওয়া যাবে। অপরাধের জন্য কোনো প্রবাসীকে পুলিশের কাছে হস্তান্তরের প্রয়োজন হলে তা একটি কমিটি নির্ধারণ করে দেবে।

সৌদি আরবের পাসপোর্ট বিভাগের পরিচালক সুলাইমান আল-ইয়াহিয়ার বরাত দিয়ে গত মঙ্গলবার দেশটির স্থানীয় এক সংবাদমাধ্যমে এ খবর জানানো হয়েছে।

তিনি বলেন, প্রবাসী শ্রমিকদের ছোট-খাট অপরাধের জন্য দ্রুত জরিমানা আদায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করার ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

দেশটির প্রবাসী প্রশাসনিক বিভাগের পরিচালকের সঙ্গে এক বৈঠকে তিনি জানান, কোনো ধরনের অপরাধের পর প্রবাসীদের আটক বা জরিমানা করা হবে কিনা- তা নির্ধারণ করতে একটি বিশেষ কমিটি করা হবে।

সুলাইমান আল-ইয়াহিয়া জানান, প্রতিদিন বিভিন্ন ধরনের লঘু অপরাধের জন্য ৭০০ থেকে ৯০০ প্রবাসীকে আটকের পর মুক্তি দেওয়া হচ্ছে। আবাসিক অনুমতিপত্র নবায়নের খচর বহন করতে ব্যর্থ হওয়াকেও তাদের অপরাধ হিসেবে বিবেচনা করা হয়। এই ধরনের অপরাধের জন্য আর্থিক জরিমানা দিতে হবে।

তিনি জানান, কোনো প্রবাসীকে তার অপরাধের জন্য পুলিশের কাছে হস্তান্তরের প্রয়োজন হলে তা কমিটি নির্ধারণ করবে।

প্রসঙ্গত, সৌদি আরবে প্রবাসী শ্রমিকদের বিরুদ্ধে পলায়নের মিথ্যা অভিযোগ করলে নিয়োগকারীদের শাস্তির বিধান রেখে গত জুলাই মাসে শ্রম গাইডে সংশোধন করেছে দেশটির শ্রম মন্ত্রণালয়।এতে বলা হয়েছে, কোনো প্রতিষ্ঠান প্রবাসী শ্রমিকদের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ দিলে পরবর্তী পাঁচ বছরের জন্য তার সেবা বন্ধ করে দেওয়া হবে।

গত আগস্টে সৌদি শ্রম মন্ত্রণালয়ের একটি নির্দেশনায় বলা হয়েছে, প্রবাসী শ্রমিকদের পাসপোর্ট জব্দ না করা যাবে না। প্রবাসী শ্রমিকদের পাসপোর্ট জব্দ করে রাখা নিয়োগকর্তাদের জন্য কখনও বৈধ নয়। মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা বাস্তবায়নে ব্যর্থ নিয়োগকারীদের জরিমানা গুণতে হবে।

সূত্র: আরবনিউজ