cosmetics-ad

আমাকে ‘মোটু’ বোলো না

 

korea-politics-kim

একে তো বিশাল বপুর অধিকারী তিনি। আবার নানা বিতর্কিত সিদ্ধান্ত নিতে তার জুড়ি মেলা ভার। কিম জং উনকে নিয়ে হাসি মস্করাও করা যায় না উত্তর কোরিয়ায়। চীনে সে বাধা নেই। তাই উত্তর কোরিয়ার এই নেতাকে চীনে ‘‌তৃতীয় মোটা কিম’‌ (‌জিন সান পাং)‌ বলা হয়। শব্দটা চীনা ভাষায় এতটাই পরিচিত যে ‘‌কিম’‌ লিখলেই সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট ‘‌বাইদু’‌ এবং ‘‌ওয়েবো’‌ তে বাকি শব্দগুলো আপনাআপনি চলে আসে।

ব্যাপারটা চোখ এড়ায়নি উত্তর কোরিয়ার। সম্প্রতি প্রতিনিধিস্তরে বৈঠকে বসেছিল বেজিং ও পিয়ংইয়ং। সেখানেই প্রেসিডেন্ট–কে ‘‌মোটা’‌ বলা নিয়ে আপত্তি জানানো হয়। তাদের আশঙ্কা, কিম হয়ত তার ডাক নামটা জেনে যাবেন। চীনে এখন ‘‌বাইদু’‌ এবং ‘‌ওয়েবো’‌তে ‘‌কিম’‌ লিখলে আগের মত ‘‌মোটা কিম’‌ পাওয়া যাচ্ছে না। এমনিতে উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে চীনের সম্পর্ক বেশ ভালই।

মার্কিন রক্তচক্ষু এরানোর সাহস উত্তর কোরিয়া দেখাতে পারছে চীনের জন্যই। সম্প্রতি উত্তর কোরিয়ার পরমাণু কর্মসূচীর নিন্দা করেছিল দক্ষিণ কোরিয়া, জাপান, আমেরিকা এবং রাশিয়া। চীনও সেই নিন্দায় শামিল হয়েছিল।

তবে বেজিং–এর সঙ্গে পিয়ং ইয়ং–এর সম্পর্কে ছেদ পড়েনি। বুধবার চীনা বিদেশ দপ্তরের মুখপাত্র জেন সুয়াং বলেছেন ‘‌জিন সান পাং’‌ নিষিদ্ধ করার খবর সত্যি নয়।