cosmetics-ad

মিরপুরে রুদ্ধশ্বাস ৩০ মিনিট!

Mirpur

২০১৫ সালে বাংলাদেশে আসার কথা ছিল অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের। কিন্তু নিরাপত্তার অজুহাতে বাংলাদেশ সফর স্থগিত করে অসিরা। দুই বছর পর বাংলাদেশ সফর করতে আগামীকাল দেশে পা রাখতে যাচ্ছে ডেভিড ওয়ার্নার, স্টিভ স্মিথরা।

কিন্তু বাংলাদেশে পা রাখার আগেই মিরপুর স্টেডিয়ামে নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা! বৃহস্পতিবার বেলা ১২টায় হঠ্যাৎ স্টেডিয়ামে গোলাগুলি। স্টেডিয়ামে ‘অ্যাটাক’ করেছে দুধর্ষ সন্ত্রাসী। চোখের পলকের মধ্যেই উদ্ধারে এসেছে সেনাবাহিনীর ‘এক’ প্যারা কমান্ডো ব্যাটেলিয়ান।

Mirpurহেলিকপ্টার থেকে অবতরণের পর ২০জন সেনাবাহিনীর কমান্ডো স্টেডিয়ামে অভিযান চালায়। শুরু হয় বৃষ্টির মত গুলি বর্ষণ। কমান্ডোরা দ্রুতই পুরো মাঠ নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নিয়ে নেন। ড্রেসিং রুমে ঢুকে জিম্মিদের জীবিত উদ্ধার করে হেলিকপ্টারে করে তাদের দ্রুত নিরাপদ আশ্রয়ে নিয়ে যান কমান্ডোরা।

৩০ মিনিটের সাজানো নাটকের সফল পরিসমাপ্তি সেখানেই! অস্ট্রেলিয়া ও বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের নিরাপত্তা মহড়া চলছিল মিরপুর শের-ই-বাংলায়। সফলভাবে শেষ হয় সেনা অভিযানের মহড়া। ৩০ মিনিটের এ সাজানো নাটকের মধ্য দিয়ে বিশ্ব দরবারে পরিস্কার মেসেজ দিয়েছে বাংলাদেশ, ‘নিরাপত্তা নিয়ে কোনো ঘাটতি নেই এখানে।’

Mirpurসেনাবাহিনীর মহড়া মাঠে উপস্থিত থেকে দেখেছেন ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার নিরাপত্তা প্রধান শন ক্যারল। পুরো মহড়ার ভিডিও ফুটেজ সংগ্রহ করেছেন সফরকারী দলের দুই কর্মকর্তা। দুটি টেস্ট ম্যাচ খেলতে আগামী ১৮ আগস্ট ঢাকায় পা রাখবে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল।

অস্ট্রেলিয়া দলকে নিরাপত্তা দিতে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা গড়ে তুলেছে বাংলাদেশ। নাশকতা এড়াতে পুরো সিরিজে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সঙ্গে কাজ করবে সেনাবাহিনীও। জরুরি প্রয়োজনে ৩০ মিনিটের মধ্যে স্টেডিয়াম পাড়ায় আসবে সেনাবাহিনী।

Mirpur‘এক’ প্যারা কমান্ডো ব্যাটেলিয়ান অধিনায়ক লে কর্নেল এম এম ইমরুল হাসান মিরপুরে সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘বাংলাদেশ সেনাবাহিনী দেশ ও জাতির যে কোনো প্রয়োজনে অবদান রাখতে সর্বদা অঙ্গিকারবদ্ধ। বাংলাদেশ সরকার বাংলাদেশ সেনাবাহিনীকে যে কোনো দায়িত্ব প্রদান করলে এটা সম্পূর্ণ সফলভাবে সম্পন্ন করার জন্য আমরা সব সময়ই সর্বাত্মক প্রস্তুতি গ্রহণ করে থাকি। তারই ধারাবাহিকতায় চলমান বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট সিরিজের নিরাপত্তার স্বার্থে আমরা বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর একমাত্র বিশেষায়িত ফোর্স ‘এক’ প্যারা কমান্ডো ব্যাটেলিয়ান বাংলাদেশ আর্মি এভিয়েশন, বাংলাদেশ বিমানবাহনী এবং সাথে অন্যান্য আইনশৃংখলাবাহিনী সকল সদস্যদের সমন্বয়ে একটা সার্বিক মহড়া এইমাত্র অনুষ্ঠিত হলো।’ রাইজিংবিডি