cosmetics-ad

উত্তর কোরিয়ার সীমান্তে দক্ষিণ কোরিয়ার গোলাবর্ষণ, বাড়ছে উত্তেজনা

south-korea

জাপানের উপর দিয়ে উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপের জেরে পিয়ংইয়ংয়ের সঙ্গে পশ্চিমের উত্তেজনা দেখা দিয়েছে। এদিকে, উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপের কয়েক ঘণ্টার মধ্যে সীমান্তে সামরিক মহড়া থেকে বোমা বর্ষণ করেছে দক্ষিণ কোরিয়া।

মহড়ায় আমেরিকার তৈরি মার্ক-৮৪ বোমা ব্যবহার করা হয়েছে। মহড়া চলাকালে দক্ষিণ কোরিয়ার বিমান বাহিনীর চারটি এফ-১৫কে জঙ্গিবিমান আট দফা মার্ক-৮৪ বোমা ফেলেছে। মহড়ায় ব্যবহৃত মার্ক-৮৪ প্রতিটি বোমার ওজন একটন বলে জানিয়েছে দক্ষিণ কোরিয়ার ইয়োনহ্যাপ সংবাদ সংস্থা।

দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় প্রদেশ গাংওন এ মহড়া চালানো হয়েছে। অবশ্য কি ধরণের লক্ষ্যবস্তুর বিরুদ্ধে অত্যন্ত শক্তিশালী এ বোমা ব্যবহার করা হয়েছে বা মহড়ার উদ্দেশ্য কতোটা সফল হয়েছে তা নিয়ে আর কোনো তথ্য খবরে দেয়া হয়নি।

south-korea-biman
দক্ষিণ কোরিয়ার বিমান বাহিনীর ফাইল ছবি

মঙ্গলবার স্থানীয় সময় ভোরে পিয়ংইয়ংয়ের সুনান ঘাঁটি থেকে উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্রটি নিক্ষেপ করা হয়; যা জাপানের আকাশ পাড়ি দিয়ে উত্তর প্রশান্ত মহাসাগরে পড়েছে। তবে জাপানের আকাশ সীমা অতিক্রম করলেও জাপানের সেনাবাহিনী এই ক্ষেপণাস্ত্র ভূপাতিত করার কোনো চেষ্টা চালায়নি। ব্রিটিশ দৈনিক ডেইলি মেইল বলছে, উত্তর কোরিয়ার ওই ক্ষেপণাস্ত্র জাপানের হোক্কাইডো উপকূলের কাছে তিন টুকরায় বিভক্ত হয় ক্ষেপণাস্ত্রটি এবং প্রশান্ত মহাসাগরে পড়ে।

মাত্র আট মিনিটের মধ্যে এক হাজার ৭০০ মাইল অতিক্রম করে প্রশান্ত মহাসাগরের ক্যাপে এরিমোর প্রায় ৭০০ মাইল পশ্চিমে ওই ক্ষেপণাস্ত্র অবতরণ করে। এর কয়েক ঘণ্টার মধ্যে সেনাবাহিনীর মহড়া থেকে উত্তর কোরিয়া সংলগ্ন সীমান্ত এলাকায় গোলাবর্ষণ করেছে দক্ষিণ কোরিয়া।