cosmetics-ad

ইএমএমে অংশ নিতে দক্ষিণ কোরিয়ায় বাণিজ্যমন্ত্রী

tofael-ahmedএশিয়া-ইউরোপ মিটিংয়ের (আসেম) সপ্তম ইকোনমিক মিনিস্টার্স মিটিংয়ে (ইএমএম) অংশ দিতে দক্ষিণ কোরিয়া গেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। দক্ষিণ কোরিয়ার রাজধানী সিউলে হবে এ সভা।

বুধবার রাতে দক্ষিণ কোরিয়ার উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করেন বাণিজ্যমন্ত্রী। দক্ষিণ কোরিয়ার ট্রেড, ইন্ডাস্ট্রি এবং এনার্জি মিনিস্টারের আমন্ত্রণে এ মিটিংয়ে অংশ নিচ্ছেন তোফায়েল আহমেদ।

এশিয়া-ইউরোপ মিটিংয়ের (আসেম) সপ্তম ইকোনমিক মিনিস্টার্স মিটিংয়ে (ইএমএম) সদস্য দেশগুলোর বাণিজ্যমন্ত্রী এবং জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তারা অংশ নিচ্ছেন। এ সময় বাণিজ্যমন্ত্রী তাদের সঙ্গে বাংলাদেশের বৈদেশিক বাণিজ্য সম্প্রসারণ বিষয়ে আলোচনা করবেন।

সভায় ফেসিলিটেটিং অ্যান্ড প্রোমোটিং ট্রেড অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট, স্ট্রেনদেনিং ইকোনমিক কানেকটিভিটি এবং সাসটেইনেবল গ্রোথ বিষয়ে আলোচনা হবে। দক্ষিণ কোরিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মো. জুলফিকার রহমান বাণিজ্যমন্ত্রীর সঙ্গে থাকবেন।

এশিয়া এবং ইউরোপের দেশগুলোর মধ্যে সেতুবন্ধন স্থাপনের লক্ষ্যে এ দুই অঞ্চলের ২৬টি দেশের সমন্বয়ে ১৯৯৬ সালে এশিয়া ইউরোপ মিটিং (আসেম) নামক জোট গঠিত হয়। জোটটি এশিয়া এবং ইউরোপের দেশগুলোর মধ্যে অর্থনৈতিক, বাণিজ্যিক এবং সামাজিক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আসছে। বর্তমানে এ জোটের সদস্য সংখ্যা ৫৩। বাংলাদেশ ২০১২ সালে আসেমে যোগ দেয়। বর্তমানে আসেমের দেশগুলো বিশ্ব জিডিপির ৫৭ ভাগ, জনসংখ্যার ৬২ ভাগ এবং বিশ্ববাণিজ্যের ৬৪ ভাগের প্রতিনিধিত্ব করে।

আসেমের সর্বশেষ ইকোনমিক মিনিস্টার্স মিটিং (ইএমএম) হয়েছিল ২০০৫ সালে।