cosmetics-ad

ভারত থেকেও বাংলাদেশে আসছে রোহিঙ্গারা!

rohinga

রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে ভারতের কঠোর অবস্থানের কারণেই তারা বাংলাদেশের দিকে ঝুঁকছে। আগে থেকে ভারতে অবস্থান করা প্রায় ৪০ হাজার রোহিঙ্গাদের অনেকেই এখন ছোট ছোট দলে ভাগ হয়ে ভারত ছাড়ছে বলে দেশটির সংবাদমাধ্যম ইকোনোমিক টাইমসের এক খবরে বলা হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার ইকোনোমিক টাইমসের এক খবরে বলা হয়েছে, ভারতের বিভ্ন্ন অঞ্চলে যারা নির্মাণ শ্রমিক হিসেবে কাজ করতো, অন্যের বাসায় গৃহপরিচারিকা হিসেবে কাজ করতো কিংবা ছোট দোকান চালাতো তাদের অনেকেই এখন বাংলাদেশে চলে যাচ্ছে।

ভারতের সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফ এর এক কর্মকতার বরাত দিয়ে ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত কয়েক সপ্তাহে কমপক্ষে অর্ধ শতাধিক রোহিঙ্গা ভারত থেকে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে।

বিএসএফ এর ওই কর্মকর্তা জানান, আলোচ্য সময় উত্তর প্রদেশের স্মরণপুর, অন্ধ্রপ্রদেশের হায়দারাবাদ ও পাঞ্জাবের আমবালা থেকে উত্তর ২৪ পরগোনা সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে।

তিনি জানান, এছাড়া আরও কয়েকটি ছোট ছোট দলকে স্থানীয় পুলিশে সোপর্দ করেছে বিএসএফ।

উল্লেখ, ভারত ইতোমধ্যে সেখানে আশ্রয় নেওয়া প্রায় ৪০ হাজার রোহিঙ্গাকে নিজ দেশে ফেরানোর ব্যাপারে কঠোর মনভোবের কথা জানিয়েছে। এছাড়া দেশটির শীর্ষ পর্যায় থেকে অনুপ্রবেশ ঠেকাতে রোহিঙ্গাদের প্রতি ‘নিষ্ঠুর’ হওয়ার বিষয়টিও অনুমোদন দিয়েছে।

পশ্চিমবাংলার পূর্ব সীমান্তে দায়িত্ব পালন করা বিএসএফ এর সহকারী মহাপরিদর্শক আর পি এস জাসওয়াল জানান, তার জওয়ানদের নতুন করে অনুপ্রবেশ করা রোহিঙ্গাদের ফেরত ফাঠাতে সাউন্ড গ্রেনেড ও পিপার স্প্রে ব্যবহারের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

গত ২৫ আগস্ট থেকে শুরু হওয়া রোহিঙ্গা শরনার্থীদের স্রোত বাংলাদেশ ছাড়িয়ে ভারতেও গিয়েছে। তবে বাংলাদেশ সরকার এখন পর্যন্ত চার লাখের বেশি রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দিলেও ভারত এই বিষয়ে কঠোর অবস্থানে রয়েছে। এমন ভারতের প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, রোহিঙ্গা ইস্যুতে তার দেশ মিয়ানমার সরকারের পাশে আছে।