sentbe-top

দক্ষিণ কোরিয়ার দুই বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা

দক্ষিণ কোরিয়ার দুইটি বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ করে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে দেশটির শিক্ষা মন্ত্রণালয়। ২০১৮ সালের মার্চ সেশন থেকে বন্ধ হয়ে যাবে খাংউওন প্রদেশে অবস্থিত হানজুং ইউনিভার্সিটি এবং দেগুতে অবস্থিত দেগু ইউনিভার্সিটি অব ফরেইন স্টাডিজ।

দক্ষিণ কোরিয়ার শিক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় দুইটি উচ্চশিক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় শর্তাবলী পূরণে ব্যর্থ হয়েছে এবং কয়েকবার মানোন্নয়নের সুযোগ দেওয়া হলেও তা পূরণ করতে ব্যর্থ হয়েছে। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সর্বশেষ উচ্চশিক্ষা মূল্যায়নে দুই বিশ্ববিদ্যালয়ই ‘ই’ গ্রেড পেয়েছে।

হানজুং বিশ্ববিদ্যালয়

হানজুং বিশ্ববিদ্যালয় (Hanzhong University) শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উচ্চশিক্ষার জন্য বাধ্যতামূলক শর্তের ১৮টি পূরণ করতে ব্যর্থ হয়েছে। এর আগে বিশ্ববিদ্যালয়টির বিরুদ্ধে ৩৮ বিলিয়ন উওন অবৈধভাবে খরচ করার অভিযোগ করেছিল মন্ত্রণালয়। নিজেদের পক্ষে কোন প্রমাণও দাড় করাতে পারেনি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। শিক্ষার মানের পাশাপাশি আর্থিক অসংগতি, শিক্ষক কর্মকর্তাদের বেতন বকেয়া রাখা এই বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধের অন্যতম কারণ বলে জানিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

দেগু ইউনিভার্সিটি অব ফরেইন স্টাডিজ

অন্যদিকে দেগু ইউনিভার্সিটি অব ফরেন স্টাডিজ (ডাফস) বাধ্যতামূলক শর্তের ১২টি পূরণ করতে ব্যর্থ হয়েছে। বর্তমানে প্রায় ১৫শ ছাত্রছাত্রী অধ্যয়নরত থাকা এই বিশ্ববিদ্যালয়ের বিরুদ্ধেও শিক্ষার মান, অর্থ কেলেংকারীসহ নানা অভিযোগ এনেছে দেশটির শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

আগামী সেশনে দুই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদেরকে অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ে স্থানান্তর করা হবে। হানজুং বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের খাংউওন প্রদেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে এবং দেগু ইউনিভার্সিটি অব ফরেন স্টাডিজ (ডাফস) এর শিক্ষার্থীদের দেগুর বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে স্থানান্তর করা হবে। কোন ধরণের মৌখিক পরীক্ষা এবং ট্রান্সফার ফি ছাড়াই শিক্ষার্থীরা নির্ধারিত বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে একই সাবজেক্টে উচ্চশিক্ষা গ্রহণের সুযোগ পাবে।

sentbe-top