sentbe-top

মুসলিমদের সঙ্গে প্রতারণা করছে সৌদি আরব : খামেনি

khameniইরানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনি বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র ও ইসরায়েলের গোত্রভুক্ত হয়ে মুসলিম বিশ্বের সঙ্গে ‘স্পষ্টতই প্রতারণা’ করছে সৌদি আরব।

খামেনির প্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এক বিবৃতি অনুযায়ী, শিয়াপ্রধান দেশটির সংসদ সদস্যদের উপস্থিতিতে রাজধানী তেহরানে মঙ্গলবার এক সম্মেলনে সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা এই মন্তব্য করেন।

জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের স্বীকৃতি দেওয়ার বিষয়টি আলোচনা করার সময় খামেনি বলেন, এই পবিত্র শহর নিঃসন্দেহে ফিলিস্তিনের রাজধানী এবং যুক্তরাষ্ট্রের সিদ্ধান্ত কোনো কাজে আসবে না।

বিবৃতি অনুযায়ী, খামেনি অভিযোগ করেছেন, যুক্তরাষ্ট্র ও ইহুদিদের সাহায্য করছে সৌদি আরব। তিনি বলেছেন, ‘এটি নিঃসন্দেহে মুসলিম উম্মাহ ও মুসলিম বিশ্বের সঙ্গে সৌদি আরবের প্রতারণা।’

মঙ্গলবারের ওই বক্তব্যের আরেক অংশে খামেনি বলেন, ‘আমরা ভ্রাতৃত্বের সঙ্গে কাজ করতে প্রস্তুব, এমন কি সেই মুসলিমদের সঙ্গেও, যারা এক সময় সরাসরি ইরানের বিরোধিতা করেছে। বিপুল জনসংখ্যা ও অপার সম্ভাবনার ইসলামি বিশ্ব অবশ্যই মুসলিম বিশ্বে একটি বিশাল শক্তি তৈরি করতে পারে এবং ঐক্যের মাধ্যমে প্রভাবশালী হয়ে উঠতে পারে।’

মুসলিম বিশ্বর উদ্দেশে খামেনি বলেন, ‘মুসলিম দেশগুলোর মধ্যে যুদ্ধকাতরা বন্ধ করতে হবে এবং ইহুদি রাজত্বের স্বর্গ তৈরি হবে, তা আমরা কখনোই সমর্থন করতে পারি না।’

মুসলিম শিয়া সম্প্রদায়ের নেতৃত্ব দেয় ইরান। অন্যদিকে, সুন্নি সম্প্রদায়ের নেতৃত্বের আসনে রয়েছে সৌদি আরব। সৌদি বাদশাহি যুক্তরাষ্ট্রের খুবই ঘনিষ্ঠ। সিরিয়া, ইয়েমেন ও লেবাননে পরস্পরবিরোধী রাজনৈতিক পক্ষকে সমর্থন করে সৌদি আরব ও ইরান।

গত বছর জেরুজালেম সফরের সময় মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছিলেন, ইরান নিয়ে পারস্পারিক উদ্বেগ অনেক আরব দেশকে ইসরায়েলের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ হওয়ার সুযোগ দিয়েছে। গত বছর নভেম্বর মাসে এক ইসরায়েলি মন্ত্রী বলেছিলেন, ইরানকে মোকাবিলায় সৌদি আরব ও ইসরায়েল গোপনে যোগাযোগ রেখেছে।

উল্লেখ্য, ইসরায়েল রাষ্ট্রকে স্বীকৃতি দেয়নি ইরান। মধ্যপ্রাচ্যে ইরানকেই সবচেয়ে বড় শত্রু মনে করে ইসরায়েল।

sentbe-top