cosmetics-ad

জার্মানিতে নতুন করে ‘নাৎসি’ আতঙ্ক?

germany-naccy

জার্মানির এসেন শহরের নতুন একটা রীতি নিয়ে শুরু হয়েছে বিতর্ক। প্রশ্ন উঠেছে, জার্মানিতে আবার ‘নাৎসি’ শব্দের প্রয়োগ ফিরে এল কি না? এসেন শহরে উপার্জনহীন ব্যক্তিদের জন্য বিনামূল্যে খাবার দেয়ার ব্যবস্থা আছে। তবে সম্প্রতি নিয়ম করা হয়েছে ফুডব্যাঙ্ক থেকে বিনামূল্যে এই খাদ্য পাবেন কেবলমাত্র জার্মান পাসপোর্টধারীরা।

এমন নিয়মের পেছনে যুক্তি দেখানো হয়েছে- গত কয়েকবছরে জার্মানিতে শরণার্থীর সংখ্যা বেড়েছে লাফিয়ে লাফিয়ে। বিনামূল্যের খাবারের লাইনে এখন শরণার্থীরাও দাঁড়াচ্ছেন। তাদের সংখ্যাও প্রচুর। আবার সমস্যা হলো এই শরণার্থীদের বৃদ্ধ জার্মানরা ভয় পাচ্ছেন এবং সে কারণে বৃদ্ধরা বিনামূল্যের খাবারের দফতরে যেতে চাইছেন না।

এসব দিক বিবেচনা করে সিদ্ধান্ত হয়েছে, জার্মান পাসপোর্ট না থাকলে কাউকে আর বিনামূল্যে খাদ্য দেয়া হবে না। আর নতুন এ নিয়মের মধ্যেই ‘নাৎসি’ মনোভাব দেখতে পাচ্ছেন শরণার্থীরা।

নতুন এ নিয়মের বিষয়ে বামপন্থী রাজনীতিবিদেরা বলছেন, এ প্রক্রিয়া মেনে নেয়া যায় না। বস্তুত, সময় আলাদা করে কিংবা দিন আলাদা করেও সমস্যার মোকাবিলা করা যেতে। এর ফলে জার্মান মানুষের সঙ্গে শরণার্থীদের দূরত্ব বাড়বে। সব মিলিয়ে নতুন করে ‘নাৎসি’ জ্বরে ভুগতে শুরু করেছে জার্মানি।

সূত্র: ডয়চে ভেলে