মালিতে চার বাংলাদেশি শান্তিরক্ষী নিহত

maliপশ্চিম আফ্রিকার মালিতে দোয়েঞ্জা নামক স্থানে ভয়াবহ ইমপ্রোভাইসড এক্সপ্লোসিভ ডিভাইস (আইইডি) বিস্ফোরণে চার বাংলাদেশি শান্তিরক্ষী নিহত হয়েছেন। এছাড়া এ ঘটনায় আরো চারজন গুরুতর আহত হয়েছেন। মৃতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

তবে মালিতে নিয়োজিত অন্যান্য বাংলাদেশি শান্তিরক্ষীগণ নিরাপদ আছেন। বুধবার (০১ মার্চ) দিনগত রাত পোনে ১টার দিকে বাংলাদেশ আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর (আইএসপিআর) বাংলানিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

নিহতরা হলেন- ওয়ারেন্ট অফিসার আবুল কালাম, পিরোজপুর (৩৭ এডি রেজিঃ আর্টিঃ), ল্যান্স কর্পোরাল আকতার, ময়মনসিংহ (৯ ফিল্ড রেজিঃ আর্টিঃ), সৈনিক রায়হান, পাবনা (৩২ ইবি) এবং সৈনিক (পাচক) জামাল, চাঁপাইনবাবগঞ্জ (৩২ ইবি)।

এ ঘটনায় আহতরা হলেন- কর্পোরাল রাসেল, নঁওগা (৩২ ইবি), সৈনিক আকরাম, জেলা- রাজবাড়ি (৩২ ইবি), সৈনিক নিউটন, জেলা- যশোর (১৭ বীর), সৈনিক রাশেদ, জেলা- কুড়িগ্রাম (৩২ ইবি)। আহতদের প্রয়োজনীয় চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) স্থানীয় সময় দুপুর ২টার দিকে উত্তর মালিতে মাইন বিস্ফোরণের ফলে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে। দেশটির জাতিসংঘের মিশন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। বাংলাদেশি এ সৈন্যরা মালির মোপটি প্রদেশের বোনি ও দোয়েঞ্জা শহরের মধ্যবর্তী একটি সড়কে টহলরত ছিলো। এসময় তাদের বহনকারী গাড়িটি ভয়াবহ এ বিস্ফোরণের শিকার হয়।

এর আগে গত বছর সেপ্টেম্বরেও দেশটিতে বিদ্রোহীদের হামলায় তিন বাংলাদেশি শান্তিরক্ষী নিহত এবং চারজন আহত হন। এছাড়া জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা মিশনগুলোর মধ্যে সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ বলে বিবেচিত এ মিশনে বিভিন্ন দেশের অনেক শান্তিরক্ষীদের প্রাণ হারাতে হয়েছে।

২০১৩ সাল থেকে জাতিসংঘের শান্তিরক্ষী বাহিনী সংঘর্ষ কবলিত মালিতে স্থিতিশীলতা বজায় রাখতে কাজ করে আসছে। নাইজার ও বুরকিনা ফাসোর সীমান্তবর্তী মালিতে জঙ্গিরা প্রায়ই আন্তর্জাতিক শান্তিরক্ষী বাহিনী ও দেশটির সেনাবাহিনীর ওপর হামলা চালায় বলে খবর পাওয়া যায়।

সূত্র- বাংলা নিউজ