sentbe-top

‘ঢাবি ভিসি ও প্রক্টর গুজবের মহানায়ক’

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি এবং প্রক্টর গুজবের মহানায়ক বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম-আহ্বায়ক নূরুল হক নূর। তিনি বলেন, ‘কবি সুফিয়া কামাল হলে গত ১০ এপ্রিল রাতের ঘটনায় যাচাই-বাছাই না করে ছাত্রলীগের নেত্রী এশাকে বহিষ্কার করা হয়৷ সেদিন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ও প্রক্টর সংবাদ মাধ্যমেও বলেছেন, যে এশা দোষী প্রমাণিত হওয়ায় তাকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে৷ কিন্তু, পরে ভিসি আবার এ ঘটনা সম্পর্কে ভিন্ন কথা বলেছেন৷ মূলত বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি এবং প্রক্টর গুজবের মহানায়ক।’

শনিবার (১৯ মে) দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

সংবাদ সম্মেলনে থেকে পরীক্ষা বর্জন কর্মসূচি স্থগিত ঘোষণা করা হয়। তবে প্রজ্ঞাপণ জারি না হওয়া পর্যন্ত ক্লাস বর্জন কর্মসূচি পূর্বের মতো অব্যাহত রাখার কথাও বলা হয়।

অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে যুগ্ম-আহ্বায়ক রাশেদ খান বলেন, ‘কোটা সংস্কার আন্দোলনে যারা অংশগ্রহণ করেছে, তাদের ওপর নানা রকমের হুমকি আসছে, গত ১৭ মে রাতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সূর্যসেন হলের আবাসিক শিক্ষার্থী আশরাফুল ইসলাম রায়হানকে ছাত্রলীগ নেতারা শিবির ট্যাগ দিয়ে মারধর করে হল থেকে বের করে দিয়েছে৷ আমরা এর তীব্র নিন্দা জানাই৷’

আহ্বায়ক হাসান আল মামুন বলেন, ‘সারাদেশে আন্দোলনে অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা করা হচ্ছে৷ আমরা সরকারের কাছে শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার দাবি করছি৷’

মামুন আরও বলেন,’ সুফিয়া কামাল হলে ঘটে যাওয়া অনাকাঙ্খিত ঘটনার কারণ দর্শানোর (শোকজ)  নামে সাধারণ ও নিরপরাধ শিক্ষার্থীদের হয়রানি না করার জন্য বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে অনুরোধ করা হল৷’

sentbe-top