sentbe-top

কোহলিকে ‘মিথ্যাবাদী’ বললেন অ্যান্ডারসন!

Kohli-Andersonশুরু হয়ে গেছে কোহলি বনাম অ্যান্ডারসন লড়াই। শুরুটা করলেন অ্যান্ডারসনই। তিনি ঘুরিয়ে মিথ্যাবাদী বলে দিলেন ভারত অধিনায়ককে। কোহলির জবাব এখনও আসেনি। তবে দু’জনের সম্পর্ক এত ‘মধুর’ যে সেটা যে কোনও মুহূর্তে এসে যেতে পারে।

কোহলি বলেছিলেন তিনি রান পেলেন কিনা সেটা বড় ব্যাপার নয়। আসল কথা ভারতের জয়। কিন্তু ৩৫ বছর বয়সী ইংল্যান্ড ফাস্ট বোলার কোহলির এই কথাকে মিথ্যা ছাড়া কিছু ভাবছেন না। তিনি বলেছেন, ‘রান করা না করায় ওর কিছু এসে যায় না? আমার তো মনে হয় ও মিথ্যার আশ্রয় নিয়েছে।’ আসলে তিনি বোঝাতে চেয়েছেন যে, কোহলির ব্যাটে রান না এলে ভারতের সাফল্য পাওয়া কঠিন হবে। তাই কোহলির রান পাওয়া না পাওয়ার বিষয়টা কথার কথা ছাড়া কিছু নয়। কোহলিকে তাই তিনি মিথ্যেবাদী বলতে পিছিয়ে গেলেন না।

২০১৪তে শেষবার ইংল্যান্ড সফর করেছে ভারত। সেই সফরকে কোহলির গৌরবময় ক্রিকেট ক্যারিয়ারে কেরিয়ারে কালো দাগ বললে ভুল বলা হয় না। পাঁচ টেস্টে ১৩৪ রান। টেস্টে এত খারাপ পারফরম্যান্স কখনও করেননি। দেশের মাঠে ২০১৬-১৭ তে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ৪-০ জয়ে কোহলির অবদান ছিল ৬৫৫ রান। চলতি সফরের প্রথম দিকে কোহলি নিজের ফর্ম নিয়ে কিছু বলেননি। প্রশ্নের মুখে বলেন, ব্যক্তিগত ফর্মের থেকে দলের পারফরম্যান্সে চোখ রয়েছে তার। তিনি এই সফর উপভোগ করতে চান। অ্যান্ডারসন বলছেন, ‘কোহলি যাই বলুক, ভারতের জয়ের জন্য ওর রান করাটা অবশ্যই ফ্যাক্টর। ও রানের জন্য চেষ্টা করবে। একজন অধিনায়ক ও বিশ্বের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যানের কাছে সবাই তো এটাই আশা করে।’

এই দু’জনের লড়াই নিয়ে ক্রিকেট দুনিয়ায় বহু গল্প ছড়িয়ে আছে। তবে দু’জনের ‘হেড টু হেড রেকর্ডে’ অবশ্য অ্যান্ডারসনই এগিয়ে। ২০১৪’র সফরে চারবার তিনি কোহলিকে আউট করেছিলেন। কিন্তু ২০১৬তে ভারতে এসে অ্যান্ডারসন নিজের নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেননি। তিন টেস্টে মোটে চারটি উইকেট পেয়েছিলেন। অ্যান্ডারসন বলছেন, ‘এখন ক্রিকেটাররা ম্যাচ ফুটেজ নয়, অভিজ্ঞতা থেকেও শিক্ষা নেয়। সুতরাং এটা ধরে নিতেই পারি যে, কোহলি গত সফরের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগাতে চাইবে।’

অ্যান্ডারসনের ধারনা, কোহলি এই সফরের জন্য বিশেষভাবে নিজেকে প্রস্তুত করেছেন। তার এই লড়াইটা শুধু বোলার অ্যান্ডারসন নয়, ইংল্যান্ডের বাকিদের সঙ্গেও। সুতরাং, এটা একটা ভাল লড়াই হতে চলেছে।

ইংল্যান্ডে এখন গ্রীষ্মের দাবদাহ চলছে। তাপমাত্রা ৩৫ ডিগ্রিতে দাঁড়িয়েছে। অ্যান্ডারসন জানাচ্ছেন, ‘উইকেট শুকনো হলে ভারতের সুবিধা। আমাদের এটা মাথায় রাখতে হবে। তবে একটু বৃষ্টি হলে পরিস্থিতি বদলে যাবে।’

sentbe-top