cosmetics-ad

দেশে রেমিট্যান্স পাঠানোর তালিকায় শীর্ষ ১০ দেশ

remittance

দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে দেশীয় জনগণের পাশাপাশি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে প্রবাসীরা। পর্যাপ্ত কর্মসংস্থান না থাকায় বিদেশে কাজ করছেন লাখ লাখ বাঙালি। তাদের মাধ্যমে দিন দিন চাঙ্গা হচ্ছে বাংলাদেশের অর্থনীতি। আর এ রেমিট্যান্স পাঠানোর তালিকায় শীর্ষ ১০ দেশের নাম প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

২০১৮-১৯ অর্থবছরের প্রথম মাসে (জুলাই) ১৩১ কোটি ৮২ লাখ ডলার এবং দ্বিতীয় মাসে (আগষ্ট) ১৪১ কোটি ১০ লাখ ডলার রেমিটেন্স পাঠিয়েছেন প্রবাসী বাংলাদেশিরা। আর রেমিট্যান্স প্রবাহের দিক থেকে শীর্ষ ১০ দেশের তালিকায় রয়েছে সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, যুক্তরাষ্ট্র, কুয়েত, মালয়েশিয়া, ওমান, যুক্তরাজ্য, কাতার, ইতালি ও বাহরাইন। বাংলাদেশ ব্যাংকের হিসাব অনুযায়ী নতুন অর্থবছরের প্রথম দুই মাসে (জুলাই-আগষ্ট) উল্লেখিত দেশগুলো থেকেই সবচেয়ে বেশি রেমিটেন্স এসেছে।

আলোচ্য দুই মাসে (জুলাই-আগস্ট) রেমিট‍্যান্স পাঠানোর শীর্ষে রয়েছে সৌদি আরব। যেখানে ২০ লাখের বেশি বাংলাদেশি বাস করেন। জুলাই-আগস্ট মাসে সৌদি আরব থেকে ৫১ কোটি ১৫ লাখ ডলার রেমিট্যান্স এসেছে।

অন্যান্য শীর্ষ দেশগুলো থেকে সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে ৪৪ কোটি ৪২ লাখ ডলার, যুক্তরাষ্ট্র থেকে ৩২ কোটি ১৬ লাখ ডলার, কুয়েত থেকে ২২ কোটি ৮ লাখ ডলার, মালয়েশিয়া থেকে ২০ কোটি ৪৩ লাখ ডলার, ওমান থেকে ১৮ কোটি ৮০ লাখ ডলার, যুক্তরাজ্য থেকে ১৭ কোটি ৫০ লাখ ডলার, কাতার থেকে ১৭ কোটি ৪২ লাখ ডলার, ইতালি থেকে ১২ কোটি ১৪ লাখ ডলার এবং বাহরাইন থেকে ৮ কোটি ৯৭ লাখ ডলার রেমিট‍্যান্স এসেছে।

যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, অস্ট্রেলিয়া, সৌদি আরব, দুবাই, জার্মানি, ইতালিসহ পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে প্রবাস জীবন যাপন করছেন অনেক বাংলাদেশী। তার মধ্যে ৮০ শতাংশ প্রবাসীরাই বাস করে মধ্যপ্রাচ্যে। তাই রেমিটেন্স পাঠানোর তালিকায় সে দেশগুলোর নামই আগে উঠে আসে।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্ণর সালেহ উদ্দিন আহমেদ অর্থসূচককে বলেন, বিশ্বের অন্যান্য দেশগুলোর চেয়ে মধ্যপ্রচ্যের দেশগুলোতে ব্যাংকিং এজেন্ট বেশি। সে কারণে দেশগুলো থেকে খুব সহজে দেশে টাকা পাঠাতে পারেন প্রবাসীরা। ব্যাংকিং সুবিধা খুব বেশি ভাল না হওয়ার কারণে বিশ্বের অন্যান্য দেশগুলো থেকে রেমিটেন্স প্রবাহ কম বলে মনে করেন তিনি।

৮০ শতাংশ প্রবাসী মধ্যপ্রাচ্যে বাস করাকেই মধ্যপ্রাচ্য থেকে বেশি রেমিটেন্স আসার মূল কারণ হিসেবে দেখছেন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব ইন্টারন্যাশনাল রিক্রুটিং এজেন্সির (বায়রা) সভাপতি বেনজির আহমদ। তিনি অর্থসূচককে বলেন, মধ্যপ্রাচ্য থেকে বেশি রেমিটেন্স আসার মূল কারণ হচ্ছে প্রবাসী শ্রমশক্তির অধিকাংশই সেখানে বসবাস করে। প্রায় ৮০ শতাংশ প্রবাসী মধ্যপ্রচ্যে বাস করে। যে দেশে প্রবাসীদের সংখ্যা বেশি থাকবে সেদেশ থেকে রেমিটেন্স বেশি আসাটাই স্বাভাবিক বলে মন্তব্য করেন তিনি।

সৌজন্যে- অর্থসূচক