সীমান্ত থেকে স্থলমাইন অপসারণের কাজ শুরু করেছে দুই কোরিয়া

koreaউত্তর এবং দক্ষিণ কোরিয়া তাদের দুর্ভেদ্য সীমান্ত অঞ্চল থেকে স্থলমাইন অপসারণ শুরু করেছে। গত মাসে দুদেশের মধ্যে নতুন একটি চুক্তি সম্প্রদানের পর নিজেদের মধ্যে আস্থা গড়ে তোলার পদক্ষেপ হিসেবে এ স্থলমাইন সরানোর কাজ শুরু হয়েছে। দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। খবর সিএনএন।

উক্ত বিবৃতিতে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলছে, সোমবার (১ অক্টোবর) অভিন্ন সীমান্তের যৌথ নিরাপত্তা অঞ্চল থেকে দু’দেশের সেনারা কিছু ভূমিমাইন অপসারণ করেছে।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, আগামী ২০ দিনের মধ্যে দু’পক্ষ তাদের যৌথ নিরাপত্তা অঞ্চল থেকে সকল স্থলমাইন অপসারণ করে ফেলবে।

সিএনএন বলছে, ২৫০ কিলোমিটার বেসামরিকীকরণ অঞ্চলের মধ্যে এই অঞ্চলটি হচ্ছে একমাত্র স্থান যেখানে দুই কোরিয়ার সেনারা সবসময়ই মুখোমুখি অবস্থানে থাকে। আর তাই এলাকাটিতে জাতিসংঘ তাদের শান্তিরক্ষী মোতায়েন করে রেখেছে।

উল্লেখ্য, গত মাসে উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন এবং দক্ষিণের প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে ইন পিয়ংইয়ংয়ে এক শীর্ষ পর্যায়ের বৈঠকে বসেন। সে সময় দুদেশের মধ্যে একটি চুক্তি সম্প্রদিত হয় আর যার আওতায় যৌথ নিরাপত্তা অঞ্চলটি থেকে গার্ড পোস্ট এবং অস্ত্র প্রত্যাহার করে নিতে সম্মত হয় তারা। এ অঞ্চলটি থেকে স্থলমাইন অপসারণ করা হলে সেখানকার সেনাদের কাছে আর কোনো অস্ত্রই থাকবে না।