cosmetics-ad

শর্ত সাপেক্ষে নির্বাচনে অংশ নেওয়ার ঘোষণা ঐক্যফ্রন্টের

okkofront

শর্ত সাপেক্ষে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। আগের সাত দফা দাবির সঙ্গে নির্বাচন এক মাস পেছানোর দাবি যুক্ত হয়েছে। আজ সোমবার জাতীয় প্রেসক্লাবে ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এই ঘোষণা দেন।

ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ২ দফা আলোচনা শেষ হওয়ার পরেও আমাদের সাত দফা দাবি নাকচ করে দেওয়া হয়েছে। আমাদের কর্মীদের গ্রেফতার না করার আশ্বাস দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। তার পরেও রাজশাহী সমাবেশের আগে এক দিনে ১২০০ নেতাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ, যা একেবারেই কাম্য নয়।

নির্বাচন কমিশন সম্পর্কে তিনি বলেন, বর্তমান নির্বাচন কমিশন সরকারের আজ্ঞাবহ হয়ে কাজ করছে। তারই সূত্র ধরে নির্বাচনী সময়সীমার ৯০ দিন শেষ হওয়ার ৩৫ দিন বাকি থাকতেই তফসিল ঘোষণা করেছে। সরকার এবং এই ইসি আলোচনার মাধ্যমে আসলেই কোন সমাধান চাইনি।

এ সময় জাতীয় ঐক্য ফ্রন্ট এর শীর্ষ নেতা কামাল হোসেন বলেন, পূর্বেও আমাদের দেশে ঐক্যফ্রন্ট গঠন হয়েছে। এবং জনগণ তাতে সমর্থন জানিয়েছে। প্রত্যেকটির লক্ষ্য অর্জন হয়েছে। আশা করি আমরাও আমাদের লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারবো।

জাতীয় ঐক্য ফ্রন্টের সব দল একটি প্রতীকে নির্বাচন করবে কিনা এই প্রশ্নের জবাবে কামাল হোসেন বলেন, এখনো এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়নি। পরে বিষয়টি জানিয়ে দেওয়া হবে।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর আব্দুল কাদের সিদ্দিকী, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, জেএসডি সভাপতি আ স ম আব্দুর রব, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না প্রমুখ।