পাষণ্ড বাবার হাত থেকে রেহাই পেল না ৩ বছরের মেয়ে

rapist-fatherঝগড়া করে বাড়ি ছেড়ে বাবার বাড়িতে চলে গেছেন স্ত্রী। ঘরে রেখে গেছেন তিন বছরের মেয়েকে। একা পেয়ে মদ্যপ স্বামী তার ওপরই নিজের সমস্ত বিদ্বেষ মেটালেন! নিজের তিন বছরের ওই শিশুকন্যাকে ধর্ষণ করল সে। বুধবার কলকাতার গুরুগ্রামে মর্মান্তিক এ ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার অভিযুক্ত বাবাকে গ্রেফতার করেছে কলকাতা পুলিশ।

বুধবার রাতে মদ্যপ অবস্থায় বাড়ি ফেরেন ওই ব্যক্তি। স্বামীর প্রত্যেকদিনের এই বদভ্যাসে বিরক্ত ছিলেন স্ত্রী। সে রাতেও দু’জনের মধ্যে প্রচণ্ড ঝগড়া হয়। রাতেই ১ বছরের সন্তানকে নিয়ে বাড়ি ছেড়ে এক আত্মীয়র বাড়িতে চলে যান স্ত্রী। ঘরে রেখে গিয়েছিলেন তিন বছরের ওই শিশুকন্যাকে। মদ্যপ স্বামী যে এতটা ভয়ঙ্কর হয়ে উঠতে পারেন, তা ঘূণাক্ষরেও কল্পনায় আনেননি তিনি।

পর দিন সকালে বাড়ি ফিরে দেখেন, বিছানায় অবচেতন অবস্থায় পড়ে রয়েছে শিশুটি। বিছানা রক্তাক্ত। স্বামী পলাতক। তখনই স্বামীর বিরুদ্ধে পুলিশের কাছে অভিযোগ জানান তিনি। পুলিশ বলছে, শিশুটির অবস্থা আশঙ্কাজনক। রাজধানী নয়াদিল্লির সফদরজং হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে তার।

পুলিশ কর্মকর্তা সামশের সিং বলেন, হাসপাতালের চিকিৎসকরা মেডিকেল পরীক্ষার পর যৌন নির্যাতনের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। শিশুটির অবস্থা গুরুতর ছিল এবং তাই তাকে দিল্লির সফদরজং হাসপাতালে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

সৌজন্যে- জাগো নিউজ