cosmetics-ad

ভারতের উদ্বেগ বাড়িয়ে ক্ষেপণাস্ত্রের সফল পরীক্ষা চীনের

russia-missile

ভারতের উদ্বেগ বাড়িয়ে রাশিয়া থেকে কেনা অত্যাধুনিক এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র বিধ্বংসী ব্যবস্থার সফল পরীক্ষা চালিয়েছে চীন। ২০১৫ সালে রাশিয়া থেকে তিনশো কোটি মার্কিন ডলার চুক্তিতে কিনলেও এই প্রথম সেই অস্ত্রের সফল পরীক্ষা চালানো হয়। তবে চীনের কোথায় এই পরীক্ষা চালানো হয়েছে, তা এখনও জানা যায়নি। খবর- সাউথ চায়না মর্নিং পোস্ট

চীনই ছিল প্রথম দেশ, যারা রাশিয়া থেকে এই অত্যাধুনিক যুদ্ধাস্ত্র কেনার চুক্তি করে। কিন্তু ঠিক কয়েকটি এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র কিনেছে চীন এবিষয়ে মুখ খোলেনি বেজিং এবং মস্কো দু’পক্ষই।

১০ মিটার উচ্চতা থেকে ২৭ কিলোমিটার উচ্চতায়ে কোনও শত্রু ক্ষেপণাস্ত্র, যুদ্ধবিমান, ড্রোন এই যুদ্ধাস্ত্রের মাধ্যমে ধ্বংস করা যাবে। ৬০০ কিলোমিটার দূরত্বে থাকা প্রতিপক্ষের অস্ত্রকেও নির্ভুল লক্ষ্যে আঘাত হানতে পারে এস-৪০০। প্রতি সেকেন্ডে ৩৬টি লক্ষ্যবস্তুকে ধ্বংস করতে পারে এই রুশ যুদ্ধাস্ত্র।

সংবাদ মাধ্যমের কাছে চীনা প্রতিরক্ষা বিশেষজ্ঞ লি জি জানিয়েছেন, ‘চীন ও রাশিয়ার সঙ্গে আমেরিকার সম্পর্ক যখন খারাপ থেকে খারাপতর হচ্ছে, ঠিক তখনই এই পরীক্ষা চালালো বেজিং। এশিয়া মহাদেশে আমেরিকার বাড়তে থাকা সামরিক প্রভাব সামাল দিতে এই রুশ-চীনা যৌথ সামরিক পরীক্ষা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আমেরিকার চাপ থাকা সত্ত্বেও চীনে নিজেদের সামরিক প্রভাব বাড়াচ্ছে রাশিয়া।’

এই ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থার নীচের স্তরের এস-৩০০ যুদ্ধাস্ত্রও আছে চীনের দখলে। সেই কারণেই সহজে সফল পরীক্ষা করতে পেরেছে বেজিং, এমনটাও মনে করছেন প্রতিরক্ষা বিশেষজ্ঞদের অনেকে।