cosmetics-ad

সিডনিতে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ এলামনাই’র পুনর্মিলনী

সিডনিতে অনুষ্ঠিত হল ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ এলামনাই অস্ট্রেলেশিয়া এর প্রথম পুনর্মিলনী। এই আয়োজনে অংশ নিতে অস্ট্রেলিয়ার বিভিন্ন অঙ্গরাজ্য এবং নিউজিল্যান্ড থেকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ এর সাবেক শিক্ষার্থীরা সমবেত হয়েছিল সিডনিতে। দিনটি ছিল সবার জন্য অত্যন্ত আনন্দ আর আবেগপূর্ণ। সারাদিন ব্যাপী সবাই মেতে ছিল অনাবিল আনন্দ, হাসি-ঠাট্টায় আর পুরোনো দিনের স্মৃতি রোমন্থনে। বিশেষ করে বহু বছর পরে বন্ধু, সহপাঠী আর সহকর্মীদের সাথে দেখা সাক্ষাৎ আর সারাদিন একসাথে সময় কাটানোর সুযোগ পেয়ে সবাই উচ্ছাসে ভেসে গিয়েছিল। কারো কারো সাথে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ ক্যাম্পাস ছাড়ার পর এই প্রথম দেখা! সত্যিকার অর্থেই এটি হয়ে উঠেছিল DMC মিলনমেলা।

দিনটি শুরু হয়েছিল পৃথিবী বিখ্যাত সিডনী হার্বরে ব্রেকফাস্ট দিয়ে। সবাই বিপুল উৎসাহে দিনের প্রারম্ভেই জড়ো হতে শুরু করে harbor এর King স্ট্রিট Wharf এ। সবার জন্য বিশেষ আকর্ষণ ছিল দমকে Alumni Reunion অস্ট্রেলিয়া monogram নামাঙ্কিত সুদৃশ্য টি শার্ট। সকাল ৯টায় শুরু হয়ে ক্রুজ শেষ হয় দুপুর ১২টার দিকে। DMC ব্যাচ K-৩০ থেকে K-৬৩ পর্যন্ত মোট ১৪৫ জন DMCian এই ক্রুকজে অংশগ্রহণ করে। Harbor-এর নয়নাভিরাম দৃশ্য উপভোগ করার ফাঁকে চলতে থাকে বাহারি বাফেট ব্রেকফাস্ট আর চা-কফি আস্বাদন। মনোরম আবহাওয়ায় পানির মৃদুমন্দ দোলায় দুলতে দুলতে সবাই ফিরে যায় তারুণ্যের দুর্নিবার সেই দিনগুলোতে। গান, মিউজিক, চুটকি, পুঁথিপাঠ, স্মৃতি চারণ- কোনো কিছুই বাদ থাকে না। আগে কি সুন্দর দিন কাটাইতাম…….- গানের সাথে সবার স্বতঃর্স্ফূর্ত উদ্দাম নাচ অগ্রজ অনুজ সবাইকে একাকার করে দেয়।

এই পুনর্মিলনী আয়োজনের জন্য গঠিত কমিটিতে কনভেনর এবং সহ-কনভেনর  হিসেবে ছিলেন ডাঃ রশিদ আহমেদ (K -৩৬) এবং ডাঃ মইনুল ইসলাম (K-৪৩)। এছাড়া সদস্য হিসেবে ছিলেন ডাঃ জেসি চৌধুরী (K-৩৫), ডাঃ জেসমিন শফিক (K-৩৫), ডাঃ খালেদুর রহমান (K-৩৬), ডাঃ মীর জাহান মাজু (K – ৪০), ডাঃ শাহনাজ পারভীন (K-৪৩), ডাঃ জান্নাতুন নায়ীম (K-৪৫), ডাঃ মোহাম্মদ ফজলে রাব্বি (K-৪ ৭), ডাঃ ইকবাল হোসেন (K-৫২), ডাঃ রোকেয়া ফকির কেয়া (K -৫৩), ডাঃ ফাইজুর রেজা ইমন (K-৫৩), ডাঃ মোহাম্মদ শাহরিয়ার (K-৫৪), ডাঃ মুজাহিদ হাসান শোভন (K-৫৬), ডাঃ ফয়সাল চৌধুরী (K-৫৬) এবং ডাঃ গোলাম খুরশিদ তাপস (K-৫৯)।