Search
Close this search box.
Search
Close this search box.

এবার ‘নিজের ফাঁসি চাইলেন’ আওয়ামী লীগ নেত্রী নাজনীন

najninএকাদশ জাতীয় সংসদে ময়মনসিংহ এলাকা থেকে সংরক্ষিত নারী আসনে মনোনয়ন না পাওয়ায় নিজের ফাঁসি চেয়েছেন নাজনীন আলম নামের আওয়ামী লীগের এক নেত্রী। শনিবার সন্ধ্যায় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ‘আমার ফাঁসি চাই’ শিরোনামে একটি স্ট্যাটাস দেন তিনি।

chardike-ad

৯ ফেব্রুয়ারি, শনিবার রাতে ফেসবুক প্রোফাইলের ছবি পরিবর্তন করেন তিনি। নতুন যুক্ত করা ছবির সঙ্গে ক্যাপশনে নিজের ‘ফাঁসি চাওয়ার’ কারণও উল্লেখ করেন জেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির এই সদস্য।

ফেসবুকে পোস্টটি দেওয়ার পরপরই সমালোচনার ঝড় ওঠে। ‘আমার ফাঁসি চাই’ শীর্ষক ক্যাপশনে নাজনীন আলম ফাঁসির কারণ হিসেবে নিজের ভুল ও অপরাধের ৯টি কারণও তুলে ধরেন!

নাজনীন আলমের পোস্টটির স্ক্রিনশট পাঠকদের দেওয়া হলো-najnin-fb

এ বিষয়ে জানতে চাইলে আজ রোববার নাজনীন আলম বলেন, “আমি যা বলার তা ফেসবুকে বলেছি। এর বাইরে আমার কিছু বলার নেই।”

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ছাত্র জীবনে ছাত্রলীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিলেন নাজনীন। পরে তিনি ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য নির্বাচিত হন। এর আগে তিনি ময়মনসিংহ-৩ (গৌরীপুর) আসন থেকে মনোনয়ন চেয়ে পাননি। পরে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করে সামান্য ভোটের ব্যবধানে পরাজিত হন। এ সময় সাবেক সংসদ সদস্য (এমপি) ও স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী ক্যাপ্টেন মজিবুর রহমান মারা গেলে উপনির্বাচনে তিনি আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী ছিলেন।

২০১৬ সালে উপনির্বাচনে ময়মনসিংহের প্রবীণ রাজনৈতিক নাজিম উদ্দিনকে মনোনয়ন দেওয়া হয়। পরে ২০১৮ সালে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি মনোনয়ন চান। কিন্তু এবারও তাকে বাদ দিয়ে নাজিম উদ্দিন আহমেদকে মনোনয়ন দেওয়া হয়। শেষ পর্যন্ত সংরক্ষিত নারী আসনেও তাকে মনোনয়ন দেওয়া হয়নি বলে জানা যায়।