cosmetics-ad

একইসঙ্গে বিশ্বসেরা ৭ বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সুযোগ!

nurli

বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সুযোগ সবার হয় না জীবনে। অনেকে সেই সুযোগ পেলেও নিজের পছন্দ মতো ভর্তি হতে পারেন না। কিন্তু একসঙ্গে একটা দুটো নয় যুক্তরাষ্ট্রের নামকরা সাতটি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সুযোগ পেয়েছেন ভারতের এক শিক্ষার্থী।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, সম্প্রতি সিমোন নূরলি নামে ১৭ বছর বয়সী সেই শিক্ষার্থী যুক্তরাষ্ট্রের নামকরা সাতটি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়ার প্রস্তাব পেয়েছেন।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাই শহরে বসবাসরত ভারতীয় ওই শিক্ষার্থী যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া, জনস হপকিন্স, এমোরি, জর্জ টাউন, জর্জ ওয়াশিংটন, পেনিসেলভেনিয়া এবং আইভি লেগ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ভর্তির জন্য অফার লেটার পেয়েছেন।

এনডিটিভির প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, দুবাই শহরের মিডরিফ নামক এলাকার আপটাউন স্কুলে পড়াশোনা করেছেন সিমোন নামের সেই শিক্ষার্থী। গত ৯ বছর থেকে ক্লাসে বরাবরের মতো প্রথম স্থানটি ছিল তার দখলে।

বিশ্বের নামকরা এসব বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সুযোগ পেয়ে কিছুটা অবাক ওই শিক্ষার্থী বললেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে আবেদন করার সময় আমি আমার জীবনের দিকে ফিরে তাকাতে বাধ্য হয়েছিলাম। আমি যা যা করেছি তার পেছনে কারণ খুঁজে বের করতে চেষ্টা করেছিলাম। আমি আবেদনের চিঠিতে সেই সব বিষয়ের কথাই লিখেছিলাম।’

পড়াশোনার পাশাপাশি সিমোন পিয়ানো বাজাতেও বেশ পারদর্শী। ভারতে মানব পাচারের বিষয়ে ‘দ্য গার্ল ইন দ্য পিংক রুম’ নামে একটি বইও লিখেছেন তিনি। বইটি শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা বেশ কয়েকটি স্কুলে গবেষণার কাজেও ব্যবহার করছেন।

বিশ্ববিদ্যালগুলোর মধ্যে কোনটা বেছে নেবেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, আন্তর্জাতিক সম্পর্ক ও অর্থনীতি বিষয়ে যে বিশ্ববিদ্যালয়ে সবচেয়ে ভাল পাঠদান হয় সেটার উপর নির্ভর করছে তার ভর্তি হওয়ার সিদ্ধান্ত।

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে সিমোন বলেন, ‘জোর করে নিজেদেরকে কিছু করতে বাধ্য করবে না। যেটা ভাল লাগে সেটাই করবে।’ তার মতে, নিজেকে অনুপ্রাণিত করার এটাই সবচেয়ে ভালো উপায়। তুমি নিজে কী করতে ভালোবাসো সেটা খুঁজে বের করার এটাই সবচেয়ে বড় সুযোগ।