Search
Close this search box.
Search
Close this search box.

যুক্তরাষ্ট্রে পরিবারের সবাইকে খুন করে প্রবাসীর আত্মহত্যা

indian-probashiযুক্তরাষ্ট্রে পরিবারের সবাইকে খুন করে আত্মহত্যা করেছেন এক ভারতীয় প্রবাসী। ৪৪ বছর বয়সী ওই ভারতীয় তথ্য-প্রযুক্তি কর্মী নিজের স্ত্রী ও দুই ছেলেকে খুন করে নিজে আত্মহত্যার পথ বেছে নেন। ওয়েস্ট দেস মইনসের পুলিশ বিভাগ জানিয়েছে, রোববার ময়না তদন্তের রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পর এটা নিশ্চিত হওয়া গেছে যে, ভারতীয় ওই ব্যক্তি তার স্ত্রী ও দুই ছেলেকে হত্যার পর নিজে আত্মহত্যা করেছেন।

শনিবার সকালে চন্দ্রশেখর সুনকারা, লাবণ্য সুনকারা, তাদের ১৫ ও ১০ বছর বয়সী দুই ছেলের গুলিবিদ্ধ মরদেহ পাওয়া গেছে। পুলিশ জানিয়েছে, ওই বাড়িতে তাদের আরও চারজন আত্মীয় ছিলেন। তাদের মধ্যে দু’জন প্রাপ্তবয়স্ক এবং দু’জন শিশু।

চন্দ্রশেখর ও বাকিদের মরদেহ দেখার পর ওই আত্মীয়দের একজন ছুটে বাইরে বেরিয়ে যান। তিনি একজন পথচারীকে বিষয়টি সম্পর্কে জানান। ওই ব্যক্তি ৯১১ তে ফোন করেন।

পুলিশের এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, মৃতদেহ দেখেই বোঝা গেছে যে, লাবণ্য সুনকারা ও তার দুই ছেলেকে খুন করা হয়েছে। চন্দ্রশেখর সুনকারার মৃত্যুর ভঙ্গি থেকে পরিষ্কার যে, তিনি আত্মহত্যা করেছেন।

চিকিৎসকরা নিশ্চিত করেছেন যে, ওই পরিবারের চারজনেরই মৃত্যু হয়েছে গুলিবিদ্ধ হয়ে। ওয়েস্ট দেস মইনস পুলিশ বিভাগের কর্মকর্তারা শনিবার সকালে ৬৫ নম্বর স্ট্রিটের ৯০০ ব্লকে পৌঁছান। সেখান থেকেই ওই চারজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। ওই বিভাগের সার্জেন্ট ড্যান ওয়েড এক বিবৃতিতে বলেন, এই মর্মান্তিক ঘটনায় পরিবার, বন্ধু, সহকর্মী যারাই এই পরিবারকের জানতেন তাদের মধ্যে বেশ প্রভাব পড়বে।

chardike-ad