cosmetics-ad

‘গরু নিঃশ্বাস ত্যাগের সময় অক্সিজেন ছাড়ে, কাছে থাকলে যক্ষা সারে’!

cow

কয়েকদিন আগে ভারতের উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী ত্রিবেন্দ্র সিং রাওয়াত সম্পর্কে সোশ্যাল মিডিয়ায় আপত্তিকর মন্তব্য করার জন্য এক ব্যক্তিকে আটক করে পুলিশ। আর এবার নিজেই বিতর্কিত মন্তব্য করে সংবাদের শিরোনামে উঠে এলেন সেই মুখ্যমন্ত্রী।

মুখ্যমন্ত্রী ত্রিবেন্দ্র সিং রাওয়াত দাবি করেন যে, গরুই একমাত্র প্রাণী যে অক্সিজেন গ্রহণ করার পাশাপাশি বাতাসে অক্সিজেন ত্যাগও করে। বৃহস্পতিবারই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে একটি ভিডিও। ঘটনাস্থল দেরাদুন। সেখানে একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন। সেই অনুষ্ঠানে গরুর দুধ এবং গোমূত্রে থাকা ওষধি গুণাগুণ নিয়ে কথা বলছিলেন তিনি। ভাইরাল হওয়া ওই ভিডিওতে শোনা যায়, তিনি বলছেন গরু নাকি অক্সিজেন গ্রহণের পাশাপাশি বাতাসে অক্সিজেনের যোগানও দেয়।

তিনি আরও বলেন, গরুর সান্নিধ্যে থাকলে শ্বাসকষ্ট জনিত সমস্যা থেকেও মুক্তি পাওয়া যায়। শুধু তাই নয়, গরুর কাছাকাছি থাকলে যক্ষার মতো রোগও সেরে যায় বলে দাবি তাঁর।

সম্প্রতি নৈতিতালের সাংসদ অজয় ভাটও একটি বিতর্কিত মন্তব্য করেন। তিনি বলেন গড়ুর গঙ্গার জল পান করলে নাকি গর্ভবতী মায়েরা সিজারিয়ান ডেলিভারি এড়াতে পারেন এমনকি গর্ভাবস্থায় কোনও জটিলতা দেখা দিলে তাও নিরাময় করতে পারে গঙ্গার জল- এমনটাই দাবি ছিল তাঁর। আর এরপরই প্রকাশ্যে এল উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রীর এই মন্তব্য।

তবে মুখ্যমন্ত্রীর এই মন্তব্যের পক্ষে মুখ্যমন্ত্রীর দফতরের এক কর্মকর্তা দাবি করেন, উত্তরাখণ্ডের মানুষরা যে যে ধ্যানধারণায় বিশ্বাসী তিনি কেবলমাত্র সেই তথ্যই তুলে ধরেছেন। তাঁর আরও দাবি পাহাড়ে বসবাসকারী মানুষের ধারণা তাঁদের প্রাণ রক্ষার জন্য গরুর ভুমিকা অনেকটাই। কারণ গরুই তাঁদের অক্সিজেন সরবরাহ করে থাকে।

সূত্র: এনডিটিভি