cosmetics-ad

জাকির নায়েককে ফের তলব মালয়েশীয় পুলিশের

zakir-naik-malaysia

জাকির নায়েককে তৃতীয়বারের মতো জিজ্ঞাসাবাদ করছে মালয়েশিয়ার ফেডারেল পুলিশ। স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে ৩টার পর তিনি কুয়ালামপুরে ফেডারেল পুলিশ সদর দফতরে পৌঁছেন।

স্থানীয় দৈনিক মালয় মেইলের প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, ধূসর রঙের একটি টয়োটা ইনোভা এবং কালো রঙের একটি টয়োটা এস্টিমায় জাকির নায়েক পুলিশ সদর দফতরে পৌঁছান। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন আইনজীবীসহ আরও এক ব্যক্তি।

মালয় মেইল বলছে, মানহানির মামলায় জাকির নায়েককে জিজ্ঞাসাবাদ করছে দেশটির ফেডারেল পুলিশ। গত শুক্রবার বেশ কয়েক ঘণ্টা ধরে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। এরপর গত সোমবারও তাকে ১০ ঘণ্টা ধরে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ। এ নিয়ে এক সপ্তাহে তৃতীয়বার পুলিশের জেরার সম্মুখীন হলেন তিনি।

জাকির নায়েকের আইনজীবী মালয় মেইলকে জানিয়েছেন, পাঁচ ব্যক্তির দায়ের করা মানহানির মামলার পরিপ্রেক্ষিতে তার মক্কেলকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। মামলাকারী এই পাঁচ ব্যক্তির মধ্যে মালয়েশিয়ার মানবসম্পদ উন্নয়নবিষয়ক মন্ত্রী কুলাসেগারান, এমপি চার্লস সান্তিয়াগো এবং পেনাংয়ের উপমুখ্যমন্ত্রী পি রমাস্বামীও রয়েছেন।

গত ১৪ আগস্ট জাকির নায়েককে মালয়েশিয়ায় স্থায়ীভাবে বসবাসের অনুমতি দেয়া নিয়ে দেশটির মন্ত্রিসভার বৈঠকে তিন মন্ত্রী তাকে বহিষ্কারের দাবি জানিয়েছিলেন। মালয়েশিয়ার ওই তিন মন্ত্রী জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে জাতি বিদ্বেষের অভিযোগ আনেন।

জাকির নায়েক তিন বছর ধরে মালয়েশিয়ায় বসবাস করছেন। ভারতীয় এই ইসলামিক ব্যক্তিত্বের প্রতি অভিযোগ, তিনি অর্থপাচারের সঙ্গে জড়িত এবং জাতিগত বিদ্বেষ ছড়িয়েছেন। সম্প্রতি মালয়েশিয়ার হিন্দু সম্প্রদায় নিয়ে এক মন্তব্য করে সমালোচনার মুখে পড়েছেন তিনি।

জাকির নায়েক সম্প্রতি এক বক্তৃতায় বলেন, ভারতের সংখ্যালঘু মুসলিমদের চেয়ে মালয়েশিয়ার সংখ্যালঘু হিন্দুরা ১০০ গুণ বেশি অধিকার ভোগ করে। প্রসঙ্গত, মালয়েশিয়ার ৬০ শতাংশ মুসলিম বাদে বাকি ৪০ শতাংশ মানুষের অধিকাংশই চীনা ও ভারতীয় বংশোদ্ভূত।