cosmetics-ad

দক্ষিণ কোরিয়ায় দুইদিন ব্যাপী ইসলামিক কর্মশালা

anyang-mosque

মোহাম্মদ হানিফ, সিউল থেকে: দক্ষিণ কোরিয়াতে চলতি মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে সুচক-এর একটানা চারদিনের ছুটি। এই ছুটিতে প্রতি বছরের মত এবারও দুইদিন ব্যাপী ইসলামিক কর্মশালার আয়োজন করছেন আনিয়াং মসজিদ কমিটি। অন্যতম প্রধান এই মসজিদ দক্ষিণ কোরিয়ায় অভিবাসীদের জন্য ছুটির দিনগুলোতে ইসলামিক বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে আসছে।

কর্মশালাটি ১২ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার বিকেল ৪টা থেকে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে শুরু হয়ে ১৩ সেপ্টেম্বর শুক্রবার জুমার নামাজ শেষে দুপুরের খাওয়া-দাওয়ার মাধ্যমে শেষ হবে। সবার জন্য থাকা-খাওয়ার সু-ব্যবস্থাও থাকবে।

কোরিয়ার অন্যতম বৃহৎ এই মিলনমেলার ইসলমিক কর্মশালায় ফেরদৌস খানের সভাপতিত্বে প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পূর্ণ ইসলামী চিন্তাবিদ হযরত মাওলানা ডক্টর আব্দুস সামাদ সাহেব। বিশেষ আলোচক হিসেবে দারসুল কোরআন পেশ করবেন আনিয়াং মসজিদের খতিব হাফেজ মাওলানা সাইয়েদ আব্দুর রহমান সাহেব।সাইফুল ইসলাম শশীর পরিচলনায় আরো আলোচনা রাখবেন, ফেরদৌস খান, হাফেজ জামাল উদ্দিন, কামরুল হাসান(পিএসডি গবেষক ও খতিব নামিয়াং মসজিদ)প্রমুখ। এছাড়াও বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত থাকবেন। ছুটির এই দিনগুলোতে দক্ষিণ কোরিয়াতে অবস্থানরত সকল প্রবাসী মুসলমানদেরকে ইসলামিক কর্মশালায় আমন্ত্রণ জানিয়েছেন আয়োজকরা।

প্রতিবারের মত এবারও ইসলামের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা, প্রশ্নোত্তর পর্ব ছাড়াও থাকছে ইসলামিক সাংস্কৃতি অনুষ্ঠান। কর্মশালায় ইসলামিক সাংস্কৃতি অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করবেন নবাংকুর শিল্পীগোষ্ঠী।

আনিয়াং আল রাবেতা মসজিদ ইসলামিক কর্মশালা ছাড়াও দক্ষিণ কোরিয়ায় সর্বসাধরণের কাছে ইসলামের দাওয়াত পৌঁছে দেয়া এবং কোরআন সুন্নাহর আলোকে মুসলিম উম্মাহর আত্মগঠনের মাধ্যমে আল্লাহর সন্তোষ আর্জনের লক্ষ্যে প্রতি মাসের দ্বিতীয় ও শেষ শনিবার রাতে শব্বেদারী তথা রাত্রি জাগরনের মাধ্যমে ইবাদত-বন্দেগীর ব্যবস্থা করা হয়। এতে দ্বীনের মৌলিক বিষয় সম্পর্কে একজন আলোচক বিষয়ভিত্তিক ইসলামের বিভিন্ন দিক সবার সামনে তুলে ধরেন। শান্তির ধর্ম ইসলাম যা পৃথিবীর মানব জাতিকে দিয়েছে একটি পূর্ণাংগ দিক নির্দেশনা। যার কারণে মুসলমান মাত্রই পরিপূর্ণ আনুগত্যের শির নত করে দেয় ইসলামের কাছে।

আনিয়াং মসজিদে যেভাবে যাবেন: সিউল সাবওয়ের ১ নাম্বার লাইনের আনিয়াং স্টেশনের ১ নম্বর গেট দিয়ে বের হয়ে ২ নম্বর বাসে করে আনিয়াং দেহাক্কিও (আনিয়াং ইউনিভার্সিটই) নামবেন। দেহাক্কিও থেকে হাতের বাম পাশের রাস্তা দিয়ে ২০০ মিটার হাটলেই আনিয়াং মসজিদ।