cosmetics-ad

আধুনিক সন্ত্রাসবাদের উৎপত্তি ইসরায়েলে : মাহাথির

mahathir-mohammad

ফিলিস্তিনের ভূখণ্ড দখল করে ইসরায়েল প্রতিষ্ঠা ও ৯০ শতাংশ আরব জনসংখ্যাকে উচ্ছেদ করার মধ্যেই আধুনিক সন্ত্রাসবাদের শেঁকড় প্রোথিত। মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী ডা. মাহাথির মোহাম্মদ জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে দেয়া বক্তৃতায় এমন কথাই বলেছেন। খবর মালয় মেইলের।

মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রীর দাবি, যখন থেকে ইসরায়েল প্রতিষ্ঠিত হয়েছে, তখন থেকেই অনেক দেশ যুদ্ধে জড়িয়েছে। যাদের অনেকেই ইসরায়েল প্রতিষ্ঠার সঙ্গে জড়িত। এখন আমাদের মধ্যে যে সন্ত্রাসবাদ আছে ইসরায়েল প্রতিষ্ঠার আগে তা বর্তমানের মতো এতো ব্যাপক ও বিস্তৃত আকারে ছিল না।

নিউইয়র্কে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৪ তম অধিবেশনে সাধারণ বিতর্ক চলাকালীন তিনি এমন মন্তব্য করেন। তিনি আরও বলেন, ‘সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে সামরিক পদক্ষেপ কখনোই সফল হবে না। আমাদের এর কারণ বের করে তা সমূলে উৎপাটন করতে হবে। কিন্তু ক্ষমতাধরেরা (রাষ্ট্ররা) তা কখনোই চায় না।’

মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ‘ইসরায়েল তৈরির কারণে সেখানে ইসলাম এবং মুসলিম বিরোধী শত্রু তৈরি হয়েছে। গোটা বিশ্বে মুসলিমরা কিছু না করলেও তাদের সন্ত্রাসী হিসেবে আখ্যায়িত করা হচ্ছে। সবখানে মুসলিমরা নির্যাতিত এবং নিজের দেশ থেকে বিতাড়িত হচ্ছে। তাদের কেউ আশ্রয়ও দিচ্ছে না।’

মাহাথির মোহাম্মদ বলেন, ‘প্রতি বছর হাজার হাজার মুসলিম সাগরে প্রাণ হারাচ্ছে। কেউ এটা অস্বীকার করতে পারবে না যে আগে এত প্রকটভাবে অভিবাসী সঙ্কট ছিল না। বর্তমানে যুদ্ধ এবং অস্থিরতার কারণে বিভিন্ন দেশ থেকে বাড়িঘর ছেড়ে পালাতে বাধ্য হচ্ছে তারা। এটা নিয়ে কারো কোনো মাথা ব্যথা নেই।’

বিশ্বনেতাদের সামনে মাহাথির মোহাম্মদ বলেন, ‘বন্ধুরা সব আইনের ঊর্ধ্বে, তাদের সব কিছু করার সুযোগ থাকে। তাই বোধহয় ইসরায়েল আন্তর্জাতিক আইন ও বৈশ্বিক মূল্যবোধকে আঙ্গুল দেখানোর পরও তাদেরকে সবাই সমর্থন দিচ্ছে এবং তাদের পক্ষে কথা বলছে। এই পৃথিবীতে এখন কোনো ন্যায়বিচার নেই।’