cosmetics-ad

ঘরের মাঠে বড় জয় দিয়ে শুরু পাকিস্তানের

pak

করাচি ন্যাশনাল স্টেডিয়ামে প্রায় দশ বছর পর কোনো ওয়ানডে ম্যাচ মাঠে গড়ালো। আর এমন প্রত্যাবর্তনকে স্মরণীয় করেই রাখলো পাকিস্তান। সোমবার রাতে সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে শ্রীলঙ্কাকে ৬৭ রানে হারিয়েছে সরফরাজ আহমেদের দল।

এই জয়ে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল পাকিস্তান। বৃষ্টির কারণে এই করাচিতেই সিরিজের প্রথম ওয়ানডে ম্যাচটি পরিত্যক্ত হয়েছিল।

খর্বশক্তির শ্রীলঙ্কার সামনে ৩০৬ রানের বড়সড় এক লক্ষ্যই ছুড়ে দিয়েছিল পাকিস্তান। জবাব দিতে নেমে এমনই বিপর্যয়ে পড়ে লঙ্কানরা, সেখান থেকে আর ঘুরে দাঁড়ানো সম্ভব হয়নি।

বড় লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে পাকিস্তানি বোলারদের তোপে ২৮ রান তুলতেই ৫ উইকেট হারিয়ে বসে শ্রীলঙ্কা। দলকে এই মহাবিপর্যয় থেকে বাঁচান শেহান জয়সুরিয়া আর দাসুন শানাকা। ষষ্ঠ উইকেটে ১৭৭ রানের জুটি গড়েন তারা।

তবে দুর্ভাগ্য জয়সুরিয়ার। সেঞ্চুরি থেকে মাত্র ৪ রান দূরে থাকতে (৯৬) উসমান শিনওয়ারির বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ হন তিনি। পরের ওভারে দাসুন শানাকাও (৬৮) সাজঘরের পথ ধরলে লঙ্কানদের আশার প্রদীপটা ধপ করে নিভে যায়।

পাকিস্তানের পক্ষে বল হাতে সবচেয়ে সফল ছিলেন উসমান শিনওয়ারি। শুরুতেই সফরকারিদের মেরুদণ্ড ভেঙে দেয়া এই পেসার ৫১ রান খরচায় নেন ৫টি উইকেট।

এর আগে বাবর আজমের ক্যারিয়ারের ১১তম সেঞ্চুরিতে ভর করে ৭ উইকেটে ৩০৫ রানের বড় সংগ্রহ দাঁড় করায় পাকিস্তান। ১০৫ বলে ৮ বাউন্ডারি আর ৪ ছক্কায় ১১৫ রানের ঝড়ো এক ইনিংস খেলেন বাবর।

এছাড়া ওপেনার ফাখর জামান ৫৪ আর ইমাম উল হক করেন ৩১ রান। হারিস সোহেলের ব্যাট থেকে আসে ৪০। আর শেষদিকে ২০ বলে ২টি করে চার ছক্কায় ৩২ রানের হার না মানা এক ইনিংস খেলেন ইফতিখার আহমেদ। শ্রীলঙ্কার ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা ৬৩ রানের বিনিময়ে শিকার করেন ২টি উইকেট।