Search
Close this search box.
Search
Close this search box.

সৌদিতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৩৬ প্রবাসীর ১১ জনই বাংলাদেশি

saudi-accidentসৌদি আরবের পবিত্র মদিনায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৩৬ প্রবাসীর মধ্যে ১১ জনই বাংলাদেশি। শনিবার বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেদ্দার শ্রম কল্যাণ উইংয়ের প্রথম সচিব কে এম সালাহউদ্দিন স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

chardike-ad

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ১৬ অক্টোবর দেশটির স্থানীয় সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় মদিনা থেকে ১৯০ কিলোমিটার দূরে আল আকহাল এলাকায় দুর্ঘটনার সময় বাসটিতে ৪০ জন যাত্রী ছিলেন। তাদের মধ্যে চারজন আহত হন যাদের কেউ বাংলাদেশি নন। দুর্ঘটনায় নিহত হন ৩৬ জন। তাদের দেহ পুড়ে ছাই হয়ে যায়। মদিনার আল-মিকাত হাসপাতালে নিহতদের ডিএনএনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। স্বজনরা যোগাযোগ করলে ওই হাসপাতাল এ শনাক্ত করার ব্যাপারে সহযোগিতা করবে বলে জানিয়েছে ওই হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগ।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, বাসটি রিয়াদ হতে যাত্রা শুরু করেছিল। বাস কোম্পানিসূত্রে জানা যায় এর মধ্যে ১৩ জন ছিলেন বাংলাদেশি। তাদের মধ্যে কেবল নাম সংগ্রহ করা গেছে ১০ জনের। ওই ১৩ জনের মধ্যে দুজন মদিনায় নেমে যান। বাকি ১১ জন মক্কাগামী ওই বাসের যাত্রী ছিলেন বলে বাস কোম্পানিটি জানিয়েছে।

রিয়াদে বাংলাদেশ দূতাবাসের মাধ্যমে বাস কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে ওই ১৩ জন প্রবাসী বাংলাদেশির ইকামা নম্বর ও অন্যান্য তথ্য সংগ্রহ করার প্রচেষ্টা নেওয়া হয়েছিল। কিন্তু বাস কর্তৃপক্ষ এ জাতীয় তথ্য প্রদান করতে পারেনি।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, ‘সার্বিক অবস্থা পর্যালোচনায় দেখা যায় ডিএনএ পরীক্ষা ব্যতীত মৃত ব্যক্তিদের পূর্ণাঙ্গ তথ্য পাওয়ার সুযোগ নেই। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কনস্যুলেটের পক্ষ থেকে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ অব্যাহত আছে।’

গত ১৬ অক্টোবর সৌদি আরবের স্থানীয় সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় রাজধানী রিয়াদ থেকে আসা উমরাহ যাত্রীবাহী একটি বাস মদিনা জেয়ারাহ শেষে মক্কার উদ্দেশে আসার পথে মদিনা শহর থেকে আনুমানিক ১৯০ কিলোমিটার দূরে আল আকহাল নামক স্থানে রাস্তা সংস্কারের কাজে নিয়োজিত একটি ভারি যান ধাক্কা দিলে বাসটিতে আগুন লেগে যায়।

অন্যদিকে মদিনার ট্রাফিক অফিস জানায়, বাসটির চালক ছিলেন সিরিয়ার নাগরিক। সেই সঙ্গে বাসটির কোনো বিমার আওতায় না থাকায় কোনো ধরনের মৃত্যুজনিত ক্ষতিপূরণ পাওয়ার সম্ভাবনা নেই।