cosmetics-ad

ইতালিতে মেয়েকে মেরে ছেলেকেও হত্যার চেষ্টা বাংলাদেশি বাবার

italy

ইতালিতে এক বাংলাদেশি বাবা তার ৫ বছরের কন্যা সন্তানকে জবাই করে হত্যা করেছে। পাষণ্ড পিতা বিল্লাল মিয়া শুধু কন্যা সন্তানকে হত্যা করে ক্ষান্ত হননি, তার ৮ বছরের ছেলেকেও হত্যার চেষ্টা চালিয়েছে। তবে সে চেষ্টায় তিনি ব্যর্থ হন। মঙ্গলবার (২১ এপ্রিল) ইতালির দক্ষিণ-পূর্ব আরেচ্চো শহরে লিভান্তে এ ঘটনা ঘটে। পরে ৩৯ বছর বয়সী এ বাংলাদেশি নিজেও আত্মহত্যার চেষ্টা করে ব্যর্থ হন।

জানা গেছে, ঘটনার দিন তার স্ত্রী বাসায় ছিলেন না। কেনাকাটা করার জন্য সে বাইরে গেলে এই ফাঁকে বিল্লাল নিজের পাঁচ বছরের কন্যা সন্তানকে জবাই করে হত্যা করে মরদেহ বাসা থেকে নিচে ফেলে দেয়। পাশের বিল্ডিংয়ে থাকা জনৈক এক ইতালিয়ান নাগরিক এ ঘটনা দেখে সঙ্গে সঙ্গে পুলিশে খবর দিলে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে পুলিশ এসে মরদেহ উদ্ধার করে।

একইসঙ্গে আসামি বিল্লালকে গ্রেফতার করা হয়। তবে কী কারণে এই হত্যা করা হয়েছে তা এখনও পর্যন্ত জানা যায়নি। পুলিশ এই হত্যাকাণ্ডের রহস্য খুঁজতে তদন্ত অব্যাহত রেখেছে।

এদিকে, ঘটনার পর নিহতের মা ও ভাইকে পুলিশের হেফাজতে রাখা হয়েছে বলে একটি সূত্রে জানা গেছে। হত্যাকারী বিল্লালের দেশের বাড়ি কুমিল্লার হোমনা থানা কাগাত্তা বিষ্ণুপুর গ্রামে।

প্রসঙ্গত, করোনার বিপর্যয়ে এ সময়ে এই ধরনের ন্যাক্কারজনক ঘটনায় ইউরোপের দেশটিতে তোলপাড় সৃষ্টি হয়। এই চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি এখন টক অব দ্যা টাউনে পরিণত হয়েছে।

ইতালি থেকে জমির হোসেন