cosmetics-ad

নভেম্বরের আগেই ট্রাম্প-কিম বৈঠকের আশা করছে দক্ষিণ কোরিয়া

trump-kim
ফাইল ছবি

দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জায় ইন বলছেন, ‘তিনি আশা করছেন, নভেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগেই প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প এবং উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন আরেক দফা শীর্ষ বৈঠকে মিলিত হবেন।’ দক্ষিণ কোরিয়ার একজন কর্মকর্তা আজ বলেছেন মুন সম্প্রতি হোয়াইট হাউজকে এ ধরণের অনুরোধের কথা জানিয়েছেন।

ঐ কর্মকর্তা আরও বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের তরফ থেকে মুনের অবস্থান বোঝা যায় এবং এ নিয়ে কাজ হচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা অবশ্য মুনের মন্তব্য সম্পর্কে প্রকাশ্যে কিছু বলেননি। খবর ভয়েস অব আমেরিকা’র।

গতকাল মঙ্গলবার দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট এবং ইউরোপীয় ইউনিয়নের কর্মকরতাদের মধ্যকার এক সংলাপে এ কথা প্রথম ব্যক্ত করা হয়। যুক্তরাষ্ট্রের সহযোগী পররাষ্ট্র মন্ত্রী স্টিভ বাইগান এ সপ্তায় আরও আগের দিকে বলেছিলেন, নভেম্বরের আগে আরেকবার ট্রাম্প-কিম বৈঠকের সম্ভাবনা কম, অংশত এর কারণ করোনা ভাইরাস নিয়ে উদ্বেগ। তিনি জার্মান মার্শাল ফান্ড গবেষণা প্রতিষ্ঠান আয়োজিত একটি অনলাইন ফোরামে এই মন্তব্য করেন।

তবে উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে প্রধান আলোচনাকারী ব্যক্তি বাইগান বলেন, ‘ওয়াশিংটন পিয়ংইয়ং এর সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষার ব্যাপারে সব সময়ে উন্মুক্ত। তিনি আরও বলেন যুক্তরাষ্ট্রের লক্ষ্যই হচ্ছে কোরিয়ো উপদ্বীপকে সম্পূর্ণ ও চূড়ান্তভাবে পরমাণু অস্ত্রমুক্ত করা। দক্ষিণ কোরিয়ার সংবাদ মাধ্যমের এক খবরে বলা হচ্ছে যে বাইগান জুলাই মাসের কোন এক সময়ে দক্ষিণ কোরিয়া সফরে যাবেন।’

এটা এখনও স্পষ্ট নয় যে উত্তর কোরিয়া আরও একটি শীর্ষ বৈঠকে রাজি হবে কীনা। পরমাণু অস্ত্র মুক্ত করার পদক্ষেপ হিসেবে উত্তর কোরিয়ার উপর থেকে নিষেধাজ্ঞা শিথিল করতে এবং নিরাপত্তার নিশ্চয়তা প্রদানে যুক্তরাষ্ট্রের অস্বীকৃতিতে উত্তর কোরিয়া ক্ষুব্ধ।