sentbe-top

সাঈদী এখন অ্যাপে

sayeedi

৭১ এর মানবতা বিরোধী অপরাধে আমৃত্যু কারাদণ্ডে দণ্ডিত জামায়াত নেতা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীকে নিয়ে একটি অ্যাপ পাওয়া যাচ্ছে।

গুগল প্লে স্টোর থেকে আল্লামা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী নামের অ্যাপটি বিনামূল্যে ইনস্টল করা যাচ্ছে।

অ্যাপটি প্রস্তুতকারকের নাম দেওয়া আছে নর্থসাউথআইটি।

এই অ্যাপটিতে মানবতা বিরোধী অপরাধে সাঈদীর বিচারসহ তার জীবনবৃত্তান্ত তুলে ধরা হয়েছে।

অ্যাপের প্রচ্ছদে বাংলাদেশের মানচিত্রের মাঝে সাঈদীকে বক্তব্য দিতে দেখা যায়। এর ওপরের দিকে ‘ফ্রি সাঈদী’ এবং নিচে ‘ফ্রি জামাত লিডারস’ হ্যাশ ট্যাগ রয়েছে।

এক নজর অংশে বলা হয়েছে, সাঈদীর জন্ম ১৯৪০ সালের ২ ফেব্রুয়ারি। এখন তার বয়স ৭৫ বছর।

পেশা হিসেবে বলা হয়েছে, রাজনীতিক ( প্রভাবাশালী বক্তা)।

এ অ্যাপের ‘স্বাধীনতা যুদ্ধে ভূমিকা’ নামক একটি অংশে দাবি করা হয়েছে, সাঈদী রাজাকার, আলবদর, আল শামস বা তথাকথিত শান্তি বাহিনীর সদস্য ছিলেন না।

১৯৭৪ সালের আগে তিনি কোনো রাজনৈতিক দলের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন না বলেও দাবি করা হয়েছে অ্যাপে।

গ্যালারি অংশে একাত্তরের মানবতা বিরোধী অপরাধ মামলায় আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে সাঈদীর হাজিরার ছবি রয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত ১৭ সেপ্টেম্বর একাত্তরের মানবতা বিরোধী অপরাধ মামলায় জামায়াতের নায়েবে আমির দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর  আমৃত্যু কারাদণ্ড দেন আপিল বিভাগ।

আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের দেওয়া মৃত্যুদণ্ডের রায় বাতিল করে এ রায় দেওয়া হয়।

এর আগে ২০১১ সালের ৩ অক্টোবর সাঈদীর বিচার শুরু হয়।

চূড়ান্ত রায় ঘোষণার পর সমালোচনার ঝড় ওঠে ফেসবুকসহ অনলাইন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে। ৭১ এর মানবতা বিরোধী অপরাধের দায়ে অভিযুক্তদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিতে আন্দোলনরত গণজাগরণ মঞ্চ এ রায়কে সরকারের সঙ্গে জামায়াতের আঁতাত বলে অভিযোগ তোলে।

অন্যদিকে এ রায় প্রত্যাখ্যান করে ৪৮ ঘণ্টার হরতালের ডাক দেয় জামায়াত।

প্লে স্টোর থেকে জানা যায়, অ্যাপটি সাঈদীর চূড়ান্ত রায়ের দিন আপডেট করা হয়।

 

sentbe-top