লতিফ সিদ্দিকীর ফাঁসির দাবিতে মিছিল, পুলিশের লাঠিপেটা

Paltanধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেওয়ায় আবদুল লতিফ সিদ্দিকীর ফাঁসির দাবিতে বাংলাদেশ ইসলামী আন্দোলনের (চরমোনাই) নেতা-কর্মীরা মিছিল করলে পুলিশ তাদের ওপর লাঠিপেটা করে এবং টিয়ার শেল নিক্ষেপ করে।

সোমবার বিকেল সোয়া ৩টার দিকে বাংলাদেশ ইসলামী আন্দোলনের নেতা-কর্মীরা রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশে করার চেষ্টা করলে পুলিশ বাধা দেয়। পুলিশি বাধায় সমাবেশ করতে না পেরে তারা বায়তুল মোকাররমের দিকে যাত্রা করে। পথে পুলিশ ব্যারিকেড দিলে তারা তা ভেঙে পল্টনের দিকে রওনা হয়।

প্রায় আধঘণ্টা নেতা-কর্মীরা পল্টনে অবস্থান করায় যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এ সময় লতিফ সিদ্দিকীর ফাঁসির দাবিতে বিভিন্ন স্লোগান দিতে থাকে। বায়তুল মোকাররমের সামনে তারা কয়েকটি প্রাইভেট কার ভাঙচুর করে। তখন পুলিশ টিয়ার শেল নিক্ষেপ করে।

পল্টনে অবস্থান করা নেতা-কর্মীদের পুলিশ রাস্তা ছেড়ে দিতে বলে। তারপরও তারা রাস্তায় ছেড়ে না দেওয়ায় লাঠিপেটা করে রাস্তার ওপর থেকে তাদের সরিয়ে দেয়। পরে নেতা-কর্মীরা টায়ার জ্বালিয়ে রাস্তায় আগুন ধরিয়ে দেয়।

বাংলাদেশ ইসলামী আন্দোলনের ঢাকা মহানগর শাখার সভাপতি হেমায়েত উদ্দিন বলেন, লতিফ সিদ্দিকীর ফাঁসির দাবিতে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশ করার জন্য ডিএমপির কাছে আবেদন করা হয়। তাদের আবেদন নামঞ্জুর হলে বায়তুল মোকাররমের উত্তর গেটে সমাবেশের জন্য আবেদন করা হয়। ডিএমপি তাতেও অনুমতি না দিলে পূর্বঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশ করতে গেলে পুলিশ বাধা দেয়।