sentbe-top

যা যা থাকছে সিউলের বাংলাদেশ উৎসবে

কোরিয়া প্রবাসীদের জন্য সবচেয়ে বড় উৎসব বাংলাদেশ উৎসব। আগামী ১৭ মে সিউলে এই উৎসব অনুষ্টিত হতে যাচ্ছে। বছরের সবচেয়ে বড় অনুষ্ঠান হিসেবে সবার আগ্রহও থাকে এই উৎসবকে ঘিরে। উৎসবের প্রধান প্রধান দিকগুলো নিয়ে বাংলা টেলিগ্রাফের বিশেষ প্রতিবেদন।

কনসার্টে আসছেন পার্থ ও কোনাল

এবারের বাংলাদেশ উৎসবে আসছেন জনপ্রিয় গায়ক পার্থ বড়ুয়া এবং চ্যানেল আই সেরা কন্ঠ কোনাল। জনপ্রিয় এই দুই শিল্পীর জনপ্রিয় গানগুলো কোরিয়া প্রবাসীরা আনন্দের সাথে উপভোগ করার সুযোগ পাবেন। কনসার্টে আরো যোগ দিবেন কি-বোর্ড মীর শাহরিয়ার, গিটার এমরান খান এবং ড্রাম প্রদীপ পেরিস।

partho konalবাংলাদেশের জনপ্রিয় কন্ঠশিল্পী পার্থ বড়ুয়া বাংলাদেশী জনপ্রিয় ব্যান্ড সোলস এর ভোকাল ও গিটারস্টি। তার জনপ্রিয় গানগুলো হচ্ছে ‘নিঃসঙ্গতা’, ‘হাজার বর্ষা রাত’, ‘ও বন্ধু তোকে মিস করছি ভীষণ’, ‘রিম ঝিমঝিম বৃষ্টি পড়ে’, ‘দেখা হবে বন্ধু’, ‘আজ দিন কাটুক গানে’, ‘সারাদিন তোমায় ভেবে’, ‘সুষ্মিতা’, ‘হৃদয়হীনা’, ‘দখিনা হাওয়া’, ‘এখনও দু’চোখে বন্যা’, ‘সময় আর কাটনো’, ‘শোন পথিক’, ‘তোমার ঐ মনটাকে’ ‘ঝুট ঝামেলা’, ‘ছায়া’, ‘জ্যাম’ ইত্যাদি। তিনি দেশ-বিদেশের নানা কনসার্টে অংশগ্রহণ করেন।

কন্ঠশিল্পী কোনাল ২০০৯ সালে ‘চ্যানেল আই সেরাকণ্ঠ’ প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন প্রায় লক্ষাধিক প্রতিযোগীকে পেছনে ফেলে কোনাল অর্জন করে নিয়েছিলেন সেরাকণ্ঠের পুরস্কার। গানের পাশাপাশি কোনাল বিভিন্ন সময়ে একাধিক অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেছেন। এছাড়া অভিনয়,নৃত্যশিল্পী হিসেবে কোনালকে দেখা যায় বিভিন্ন অনুষ্ঠানে।

কোরিয়া প্রবাসী শিল্পীদের আমন্ত্রণ

বিসিকে এবারের উৎসবে কোরিয়া প্রবাসী শিল্পীদের জন্য বিশেষ একটি পর্ব সাজিয়েছে। কোরিয়া মাতানো শিল্পীদের বিশেষ সম্মাননাও দেওয়া হবে এই উৎসবে। উৎসবে অংশ নিবেন এমন শিল্পীদের মধ্যে মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলেন কোরিয়ার পরিচিত এবং জনপ্রিয় শিল্পী আশুতোষ অধিকারী, অভিনেতা এবং কন্ঠশিল্পী আসাদুজ্জামান খান, কন্ঠশিল্পী তৌফিক তামিম, কন্ঠশিল্পী সুমি বড়ুয়া এবং কন্ঠশিল্পী মিলা।

বাংলা খাবার ও পিঠা উৎসব 

উৎসবে থাকছে বিভিন্ন ধরণের বাংলা খাবার এবং পিঠার স্টল। সূলভ মূল্যে বাংলা খাবারের স্বাদ গ্রহণের সুযোগের পাশাপাশি এবার যোগ হয়েছে পিঠা উৎসব। প্রবাসীরা যাতে বিভিন্ন রকমের পিঠার স্বাদ নিতে পারেন সেই জন্য এই ব্যবস্থা।

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট টুর্নামেন্ট

gwangju
চ্যাম্পিয়ন খোয়াংজু ক্রিকেট টিম

বাংলাদেশ উৎসব উপলক্ষে ইতিমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে বিসিকে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট টুর্নামেন্ট। কোরিয়ার বিভিন্ন স্থান থেকে ১০টি দল টুর্ণামেন্টে অংশ নিয়েছিল। চ্যাম্পিয়ন হয়েছে খোয়াংজু ক্রিকেট দল। বিজয়ী দলকে বাংলাদেশ উৎসবে পুরস্কার প্রদান করা হবে।

কে জিতবেন সিউল-ঢাকা-সিউলের টিকেট?

পাঁচ হাজার উওনের কুপন কিনে যে কেউ পেতে পারেন সিউল-ঢাকা-সিউলের টিকেট, জেজু-সিউল-জেজু রাউন্ড টিকেটসহ ১৫টি আকর্ষনীয় পুরস্কার। প্রতিবারের মত এবারও অন্যতম আকর্ষণ হিসেবে থাকছে কুপন।

ক্যারম প্রতিযোগিতা

উৎসবের দিন অনুষ্টিত হতে যাচ্ছে ক্যারম প্রতিযোগিতা। সকাল দশটায় ক্যারম প্রতিযোগিতা শুরু হবে। সিংগেল এবং ডাবলস দুই পদ্ধতিতে খেলা হবে। রেজিস্ট্রেশন এবং অন্যান্য তথ্যের জন্য বিসিকে নির্বাহী সদস্য এলান খান চৌধুরীর (০১০-৬৪৭০-৫৮০৪) সাথে যোগাযোগ করতে হবে।

মিলনমেলা

korian_festival
২০১৪ সালের বাংলাদেশ উৎসব

প্রবাস জীবনের একাকীত্ব এবং কাজের চাপে বন্ধু বান্ধবের সাথে দেখা করার সুযোগ হয়ে উঠেনা। বাংলাদেশ উৎসবে যোগ দেন হাজারো বাংলাদেশী। শুধু বন্ধবান্ধব নয়, স্বদেশী হাজারো মুখ দেখার সুযোগ হয় এইদিন।  প্রতিবারই অনেক দিন দেখা হওয়া বন্ধুবান্ধবদের উৎসবের অনুষ্ঠানস্থলের বাইরে গল্প আড্ডায় মেতে উঠতে দেখা যায়।  এবারো তার ব্যতিক্রম হবে না।

আয়োজনের পেছনে যারা

বাংলাদেশ উৎসবে বাংলাদেশ কমিউনিটির ইন কোরিয়ার সাথে সহযোগিতায় আছে বাংলাদেশ এবং কোরিয়ার বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান। বরাবরের মত সিউলস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস উৎসবকে সফল করার জন্য যাবতীয় সহযোগিতা করে আসছে। এবারের উৎসবের অন্যতম বড় অর্জন  সিউল সিটির অংশগ্রহণ। সিউল সিটি বাংলাদেশ উৎসবের পৃষ্টপোষক হিসেবে আছে।  ২০১৪ সালের মত এবারো কোরিয়া কালচার এসোয়সিয়েশন বাংলাদেশ উৎসবের জন্য ভেন্যু এবং অন্যান্য সহযোগিতা করছে।

কোরিয়ার বাংলাদেশী ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো হাত বাড়িয়ে দিয়েছে উৎসবকে সফল করতে। পৃষ্টপোষক হিসেবে আছে কেএইচ ইনভেস্টমেন্ট, ওয়াইটিসি কোরিয়া কর্পোরেশন, কারি বাব, এস এন ফুড, প্রাইম ট্রাভেল, জাফরান রেস্টুরেন্ট এবং এম এস ট্রাভেলস এন্ড টেলিকম।

যেভাবে যাবেন 

সিউল সাবওয়ে’র ৫ নাম্বার লাইনের জাংহানপিয়ং স্টেশনের  장한평역 স্টেশনের ৩ নাম্বার এক্সিটে নামতে হবে। সেখানে উৎসবের স্বেচ্ছাসেবক বৃন্দ থাকবেন। নিজে নিজে যেতে চাইলে ২১১২ নাম্বার বাসে চড়তে হবে।

উৎসব সংক্রান্ত বিস্তারিত জানতে যোগাযোগ করুন বাংলাদেশ উৎসব উৎযাপন কমিটির আহবায়ক মিজানুর রহমান মিজান (০১০-২৩৩৮-০৮৩১), পার্ক মিলন (০১০-৪৬০১-১৬৪৩),  মিন সং কিম সুইট (০১০-৩২৫৪-২২৫৪), এম জামান সজল (০১০-৮৯৭১-১০৮৪)।

এরকম আরো কিছু নিউজঃ


## সিউলে বাংলাদেশ উৎসবে আসছেন পার্থ ও কোনাল

## এবার বাংলাদেশ উৎসবের পাশে সিউল সিটি

## বাংলাদেশ উৎসবে নিয়ে কোরিয়া প্রবাসীদের ব্যাপক আগ্রহ


 

sentbe-top