cosmetics-ad

নকিয়া-স্যামসাংয়ের পেটেন্ট মামলার নিষ্পত্তি

apple-vs-samsung

স্যামসাংয়ের সঙ্গে নকিয়ার পেটেন্ট নিয়ে দ্বন্দ্বের অবসান হয়েছে গতকাল। তবে বিনিয়োগকারীরা এ মামলার নিষ্পত্তি নিয়ে হতাশ। খবর রয়টার্স।

পেটেন্ট মামলার নিষ্পত্তি ঘোষণার পর ফিনল্যান্ডভিত্তিক নকিয়ার শেয়ারের দর গতকাল কমে যায় ১০ শতাংশেরও বেশি। নকিয়ার বিনিয়োগকারীরা অ্যালকাটেল-লুসেন্ট নিয়ে উদ্বিগ্ন। তাই নকিয়ার শেয়ারদরের এ অবনমন বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা। গত বছরের এপ্রিলে ১ হাজার ৫৬০ কোটি ইউরোয় অধিগ্রহণ করেছে নকিয়া। তবে তা প্রক্রিয়াধীন। চলতি বছরের প্রথম দিকেই এ কার্যক্রম শেষ হবে বলে আশা করা হচ্ছে। এদিকে নকিয়ার শেয়ারের দাম কমলেও স্যামসাংয়ের বেড়েছে ১১ শতাংশ।

ইউরোপের নরডিয়া গ্রুপের বিশেষজ্ঞ সামি সারকামিসের তথ্য অনুযায়ী, পেটেন্ট পোর্টফোলিও নিয়ে নকিয়া এরিকসনের তুলনায় বেশি অর্থ আয় করতে সক্ষম হবে। সুইডেনের এরিকসন সম্প্রতি অ্যাপলের সঙ্গে পেটেন্ট-সংক্রান্ত বিষয়ে চুক্তিবদ্ধ হয়েছে।

২০১৩ সালে স্যামসাংয়ের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক চেম্বার অব কমার্সের সালিশি আদালতে মামলা করে নকিয়া। এর পর থেকে দুই প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দ্বৈরথ চলেছে। গতকাল এর নিষ্পত্তি হলো। সম্প্রতি একই রকম বিরোধে এলজি ইলেকট্রনিকসের সঙ্গে জড়িয়ে গেছে নকিয়া। আগামী বছর প্রতিষ্ঠানটি আইফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান অ্যাপলের সঙ্গে নতুন চুক্তির বিষয়ে আলোচনা শুরু করবে বলে আশা করছেন বিশেষজ্ঞরা। তবে নকিয়ার কর্মকাণ্ডকে ইতিবাচক দৃষ্টিতে দেখছেন না বিশেষজ্ঞরা।

এ নিয়ে ডারসিক ক্যাপিটালের ফান্ড ম্যানেজার জুহা ভারিস বলেন, নকিয়ার কার্যক্রম আরো বেশি স্বচ্ছ হওয়া উচিত। বিনিয়োগকারীরা এখন প্রতিষ্ঠানে আস্থা রাখতে পারছেন না। তাই শেয়ারদরেও এর প্রভাব পড়ছে। বণিকবার্তা।