sentbe-top

প্রথম মাসেই কমল রেমিটেন্স

remittanceসদ্য সমাপ্ত অর্থবছর জুড়ে প্রবাসী আয়ের নিম্নগতির ধারা অব্যাহত আছে নতুন (২০১৭-১৮) অর্থবছরের প্রথম মাসেও। শুরু হওয়া অর্থবছরের প্রথম মাস অর্থাৎ জুলাইয়ে প্রায় ১০ কোটি ডলারের রেমিটেন্স কমেছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের সর্বশেষ প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

প্রতিবেদনে দেখা গেছে, চলতি ২০১৭-১৮ অর্থবছরের প্রথম মাস জুলাইয়ে ১১১ কোটি ৫৫ লাখ ডলারের অর্থ পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা। গত জুনে এসেছিল ১২১ কোটি ৪৬ লাখ ডলার। একমাসের ব্যবধানে প্রবাসী আয় কমেছে প্রায় ১০ কোটি ডলার।

গত ২০১৬-১৭ অর্থবছরে প্রবাসী আয় কমেছিল প্রায় সাড়ে ১৪ শতাংশ। আলোচ্য অর্থবছরে ১ হাজার ২৭৬ কোটি ৯৪ লাখ ডলার রেমিটেন্স পাঠিয়েছিল বিদেশে কর্মরত বাংলাদেশি প্রবাসীরা। তার আগের অর্থবছরে রেমিটেন্স আসে ১ হাজার ৪৯৩ কোটি ১১ লাখ ডলার। গত অর্থবছরের শুরু থেকেই রেমিটেন্স প্রবাহ নিম্মমুখী ছিল।

রেমিটেন্স কমে যাওয়ায় দুঃচিন্তায় পড়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। সম্প্রতি এক সভায় বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক আহমেদ জামাল বলেন, রেমিটেন্স বাড়াতে আমরা বিভিন্ন ধরনের উদ্যোগ গ্রহণ করেছি। রেমিটেন্সের ফি যাতে কমানো যায়, সে ব্যাপারে আমরা ব্যাংকসহ সংশ্লিষ্ট সকল প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে আলোচনা করে যাচ্ছি।

তিনি বলেন, ব্যাংকগুলো জানিয়েছে তারা কোনো ফি নেয় না। ফি নিচ্ছে এক্সচেঞ্জ হাউজগুলো। তবে এক্সচেঞ্জ হাউজের ফি নির্ধারণে বাংলাদেশ ব্যাংক কতটা ভূমিকা রাখতে পারবে সেটা দেখার বিষয় রয়েছে। রেমিটেন্স সেবার মান বাড়াতে সংশ্লিষ্ট ব্যাংকগুলোকে নির্দেশনাও দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। অর্থসূচক

sentbe-top