sentbe-top

দিল্লিতে তিন মাস আটকে রেখে বাঙালি নারীকে ধর্ষণ

rapeদিল্লিতে টানা তিন মাস ধরে গৃহকর্মীকে আটকে রেখে শারীরিক নির্যাতন এবং ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। দিল্লির পটেল নগরের এক ব্যবসায়ী তার ২০ বছর বয়সী বাঙালি গৃহকর্মীকে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে গত তিনমাস ধরে এ ধরনের জঘণ্য কাজ করে আসছিলেন।

দিল্লি পুলিশ জানিয়েছে, দক্ষিণ দিনাজপুরের ওই তরুণীকে ৫০ বছর বয়সী অভিযুক্ত ব্যবসায়ী তিন মাস ধরে আটকে রেখে লাগাতার ধর্ষণ করেছেন।

বাড়িতে কেউ না থাকলেই তরুণীকে ধর্ষণ করতো অভিযুক্ত। বাড়ি থেকে তাকে বের হতে না দিয়ে আটকে রাখা হতো। তবে ধর্ষণের বিষয়টি ওই পরিবারের অন্য নদস্যরা জানে না বলেও জানিয়েছে পুলিশ। কারণ, ঘটনার কথা কাউকে না বলার জন্য তাকে বারবার ভয় দেখাতো অভিযুক্ত। ভয় পেয়ে বিষয়টি চেপে যায় ওই তরুণী।

গোপন সূত্রে খবর পেয়ে পটেল নগরের ওই বাড়িতে হানা দিয়ে তরুণীকে উদ্ধার করে দিল্লি পুলিশের একটি দল। পুলিশ জানায়, যখন মেয়েটিকে উদ্ধার করা হয়, তখন তার শারীরিক অবস্থা মোটেও ভাল ছিল না।

দিল্লির মহিলা কমিশনের চেয়ারপারসন স্বাতী মালিওয়াল বলেন, মেয়েটি শুধু বাংলা বলতে জানে বলে অভিযোগ নিতে একটু দেরি হয়েছে। তবে তার মেডিকেল রিপোর্টেও ধর্ষণের প্রমাণ মিলেছে।

অভিযুক্ত ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে পটেল নগর থানায় ধর্ষণ এবং অবৈধ ভাবে আটকে রাখার মামলা দায়ের করা হয়েছে। তবে অভিযুক্ত ব্যবসায়ী এখনও পলাতক রয়েছেন। তার গ্রেফতারের জন্য অভিযান শুরু করেছে পুলিশ। আনন্দবাজার

sentbe-top