cosmetics-ad

গ্যালাক্সি নোট ৮-এর যে সুবিধা আইফোনে নেই

samsung-gallaxy-note-8

সম্প্রতি গ্যালাক্সি নোট ৮ স্মার্টফোন বাজারে ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিষ্ঠান স্যামসাং। একে স্যামসাংয়ের সবচেয়ে শক্তিশালী ও ফিচারসমৃদ্ধ ফোনের স্বীকৃতি দিচ্ছেন বাজার বিশ্লেষকেরা। এই ফোন এমন কিছু করতে সক্ষম হবে, যা আইফোনে করা যায় না। নোট ৮-এর কয়েকটি ফিচারের কথা জেনে নিন:

মেমোরি বাড়ানো: নোট ৮ স্মার্টফোনে অতিরিক্ত মেমোরি কার্ড সমর্থন করবে। ২৫৬ জিবি অতিরিক্ত মেমোরি কার্ড সমর্থন ছাড়াও এতে ৬৪ জিবি বিল্ট ইন মেমোরি থাকবে। আইফোনে শুধু ইন্টারনাল স্টোরেজ সুবিধা আছে।

স্টাইলাস: নোট ৮-এর গুরুত্বপূর্ণ অনুষঙ্গ হচ্ছে উন্নত স্টাইলাস। স্ক্রিনে ডুডল তৈরি বা কোনো কিছু লিখতে এটি ব্যবহার করা যাবে। এতে লাইভ মেসেজ নামে নতুন একটি ফিচার থাকছে, যা ডুডল, অ্যানিমেটেড জিআইএফ সংরক্ষণ এবং তা শেয়ার করা যাবে। স্যামসাংয়ের এই এস পেনে যে সুবিধা রয়েছে, আইফোনের জন্য তৈরি থার্ড পার্টির কিছু স্টাইলাসে তা নেই।

আইরিশ স্ক্যানার: নোট ৮-এ থাকছে আইরিশ স্ক্যানার। এতে ফোনের দিকে তাকিয়ে তা আনলক করা যাবে। এটি দ্রুত ও নিরাপদ। এ ছাড়া নোট ৮-এ পাসকোড ও ফিঙ্গারপ্রিন্ট রয়েছে। আইফোনে পাসকোড ও ফিঙ্গারপ্রিন্ট-সুবিধা আছে।

তারহীন চার্জ: গ্যালাক্সি নোট ৮ স্মার্টফোনটি তারহীন চার্জিং সমর্থন করে। আইফোনের পরবর্তী সংস্করণে ফিচারটি থাকতে পারে বলে গুঞ্জন রয়েছে।

ডেস্কটপ কম্পিউটার: স্যামসাংয়ের ডেক্স ডকের সাহায্যে নোট ৮-কে ডেস্কটপ পিসি হিসেবে ব্যবহার করা যায়। কি-বোর্ড, মাউস, মনিটর ব্যবহার করে অ্যান্ড্রয়েডের ডেস্কটপ সংস্করণ ব্যবহার করা যায়। আইফোনের স্ক্রিন মনিটর বা টিভিতে মিরর করা গেলেও তাতে কি-বোর্ড বা মাউস সমর্থন করে না।

পেছনের দুটি ক্যামেরায় ওআইএস: নোট ৮-এর পেছনের দুটি ক্যামেরায় অপটিক্যাল ইমেজ স্ট্যাবিলাইজেশন (ওআইএস) সুবিধা আছে। এর অর্থ ছবি ব্লার হওয়ার সম্ভাবনা কম। আইফোন ৭ প্লাসের একটি লেন্সে এ সুবিধা আছে।

বড় স্ক্রিন: নোট ৮-এর স্ক্রিনের মাপ বড় হওয়ায় এতে একসঙ্গে দুটি অ্যাপ চালানো যায়। আইফোন ৭ প্লাসের বড় স্ক্রিনে একটি অ্যাপ চালানো যায়।

তথ্যসূত্র: বিজনেস ইনসাইডার।