sentbe-top

হেলিকপ্টারে চড়ে কনের বাড়ি এলেন স্পেন প্রবাসী বর

groom
হেলিকপ্টারে চড়ে স্পেন প্রবাসী সোহের আহমদ কনের বাড়িতে হাজির হন।

স্পেন প্রবাসী বর হেলিকাপ্টারে চড়ে কনের বাড়িতে এসেছেন। তাই সকাল থেকেই বরকে এক নজর দেখার জন্য ছিল গ্রামের উৎসুক মানুষের ভিড়। কাছে থেকে হেলিকাপ্টার দেখার স্বাদ মিটালেন গ্রামের অনেকে। ঝাঁকজমক এ বিয়েটি হয়েছে মৌলভীবাজারের রাজনগর উপজেলায়। ২৭ অক্টোবর শুক্রবার হেলিকপ্টারে চড়ে বিয়ে হলো রাজনগর উপজেলার উত্তরভাগ ইউনিয়নের কেশরপাড়া গ্রামের হাজী আবরুছ মিয়ার ছেলে স্পেন প্রবাসী সোহেল আহমদের।

গত একমাস আগে স্পেন প্রবাসী সোহেলের সঙ্গে একই উপজেলার সদর ইউনিয়নের গড়গাঁও গ্রামের শামছুল হকের মেয়ে তাহেরা হকের বিয়ে ঠিক হয়। তাহেরা হক উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিছবাহুদ্দোজার ভাতিজি। শুক্রবার ছিল বিয়ের দিন। আগে থেকেই জানা গিয়েছিল বর আসবে হেলিকপ্টারে চড়ে। তাই আশে পাশের অনেক গ্রামের মানুষের ভিড়। দুপুর আড়াইটার সময় গ্রামের পশ্চিম পাশের কান্দিতে (খোলা মাঠে) হেলিকপ্টার এসে নামে। বর নামার আগেই প্রস্তুত ছিল বরের গাড়ি। ৩০০ বরযাত্রী ও ৫০টিরও বেশি মোটরসাইকেল শোভাযাত্রা নিয়ে বড় এলেন কনের বাড়ি।

groom

জানা গেছে, বসুন্দরা গ্রুপের হেলিকপ্টারটি দেড় লাখ টাকায় ভাড়া করেন বর সোহেল আহমদ। বরের বাড়ির পার্শবর্তী কালারবাজার থেকে বিকেল দুইটায় রওয়ানা করে হেলিকপ্টার। হেলিকপ্টার নামার উভয়স্থানে ছিল রাজনগর থানা পুলিশের কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

কনের আত্মীয় গড়গাঁও গ্রামের মারুফুর রহিম বলেন, বিয়েতে ১২শ’ অতিথির খাবারের আয়োজন করা হয়েছে। বর হেলিকপ্টার নামবে বলে অনেকেই জানতো। তাই সামনে থেকে হেলিকপ্টার দেখার জন্যই উৎসুক মানুষের ভিড়।

বর সোহেল আহমদ বলেন, জীবনে টাকা পয়সা আসবে যাবে। বিয়ে হবে তো একবারই। এই বিয়েকে স্মরণীয় করে রাখার জন্য হেলিকপ্টারের আয়োজন।

sentbe-top