শেষ ম্যাচে সান্ত্বনার জয় পেল চিটাগং ভাইকিংস

chittagong-bplবিপিএলের পঞ্চম আসরে শেষ চারের লড়াই থেকে আগেই ছিটকে গেছে চিটাগং ভাইকিংস। ১১ ম্যাচে মাত্র ২ টি জয় নিয়ে আজ মঙ্গলবার ঢাকায় প্রথম রাউন্ডে নিজেদের শেষ ম্যাচে রাজশাহীর মুখোমুখি হয়েছিল চিটাগং ভাইকিংস। এই ম্যাচে সান্ত্বনার জয় পেয়েছে চট্টগ্রামের দলটি। এই নিয়ে ১২ ম্যাচে ৩ জয়ে মাত্র ৭ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের তলানিতেই থাকল চট্টগ্রামের দলটি। ম্যাচে অসাধারণ ব্যাটিং নৈপুন্যের জন্য লুইস রিসি ম্যাচ সেরার পুরস্কারটি জিতেছেন।

টস জিতে প্রথমে চিটাগংকে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানিয়েছিল রাজশাহীর অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। ব্যাটিংয়ে নেমে রাজশাহীকে ১৯৫ রানের টার্গেট দেয় চিটাগং ভাইকিংস। সেই লক্ষ্যে ব্যাটিংয়ে নেমে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৪৯ রান তুলতেই নির্ধারিত ওভারের খেলা শেষ হয়ে যায়। ফলে ৪৫ রানের জয় পেয়েছে চিটাগং ভাইকিংস।

আজ মঙ্গলবার ঢাকার শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে জয়ের লক্ষ্যে ব্যাটিংয়ে নামে রাজশাহী কিংস। ব্যাটিংয়ে নেমে ব্যক্তিগত ৯ রানে মুমিনুল হক এবং ৬ রানে রনি তালুকদার সানজামুল ইসলামের শিকার হয়ে ফেরেন।

দুই ওপেনার ফেরার পর সামিট প্যাটেল দুর্দান্ত এক ইনিংস খেলেন। ২৬ বলে ব্যক্তিগত ৬২ রানে লুইস রিসির বলে ইরফান শুক্কুরের গ্লাবসবন্দি হয়ে ফেরেন তিনি। আর নিজের ১৫ রানে সিকান্দার রাজার বলে বোল্ড হয়ে ফেরেন অধিনায়ক মুশফিক।

মুশফিক ফিরে গেলে ক্রিজে আসেন উসামা মির। তবে দলে কোনো রান যোগ করার সুযোগ পাননি। শূন্যরানে সিকান্দার রাজার এলবিডব্লিউয়ের শিকার হয়ে ফেরেন উসামা মির।

এরপর উইকেট রক্ষক ব্যাটম্যান জাকির হাসানকে সঙ্গ দিতে ক্রিজে আসেন জেমস ফ্রাঙ্কলিন। তবে দলীয় ১৩৫ রান এবং নিজের ১৭ রানে তাসকিন আহমেদের শিকার হয়ে ফেরেন জেমস ফ্রাঙ্কলিন।

ফ্রাঙ্কলিন ফিরে গেলে ক্রিজে যোগ দেন মেহেদি হাসান মিরাজ। ব্যক্তিগত ৬ রানে রিয়াদ এমরিতের শিকার হয়ে ফেরেন মিরাজ। এরপর ক্রিজে আসেন মোহাম্মদ সামি। তাকে মাত্র ১ রানেই বিদায় করেন সিকান্দার রাজা।

সামি ফেরার পর ক্রিজে যোগ দেন কাজী অনিক। তবে দলীয় ১৪৫ রান এবং ব্যক্তিগত ১৯ রানে সিকান্দার রাজার বলে তাসকিন আহমেদের তালুবন্দি হয়ে ফেরেন জাকির হাসান।

এরপর ক্রিজে আসেন মোস্তাফিজুর রহমান। তিনি ব্যক্তিগত ১ রান দলীয় সংগ্রহে যোগ করতেই নির্ধারিত ওভারের খেলা শেষ হয়ে যায়। ফলে কাজী অনিক ব্যক্তিগত ৩ রানে অপরাজিত অবস্থায় মাঠ ছাড়েন।

এর আগে, প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমে রাজশাহীকে ১৯৫ রানের টার্গেট দিয়েছে চিটাগং ভাইকিংস। প্রথম ইনিংসে ব্যাটিংয়ে নেমে নির্ধারিত ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে ১৯৪ রান সংগ্রহ করেছে চট্টগ্রামের দলটি।

প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমে দলীয় ৬৯ রান এবং ব্যক্তিগত ৪২ রানের মাথায় মেহেদি হাসান মিরাজের বলে কাজী অনিকে হাতে ধরা পড়ে বিদায় হন লুক রনচি। এরপর ক্রিজে আসেন সৌম্য সরকার। তবে দলীয় ১০৮ রান এবং নিজের ১৭ রানে মেহেদির দ্বিতীয় শিকার হয়ে ফেরেন সৌম্য।

আর লুইস রিসি ব্যক্তিগত ৮০ এবং সিকান্দার রাজা ৪২ রান সংগ্রহ করে অপরাজিত থাকতেই নির্ধারিত ওভারের খেলা শেষ হয়ে গেছে।