sentbe-top

উত্তর কোরিয়ার দুই কূটনীতিককে বহিষ্কার করল পেরু

north-koreaপরমাণু কার্যক্রম ইস্যুতে উত্তর কোরিয়া জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের প্রস্তাবসমহূ অব্যাহতভাবে লঙ্ঘন করায় ও কূটনৈতিক মিশনের শিষ্টাচার বহির্ভূতো কর্মকাণ্ডে যুক্ত থাকার অভিযোগে দেশটির দুজন কূটনীতিককে বহিষ্কার করেছে দক্ষিণ আমেরিকার দেশ পেরু।

পেরুতে নিযুক্ত উত্তর কোরিয়ার দুই কূটনীতিককে ‘পার্সোনা নন গ্রাটা’ (নিষিদ্ধ ঘোষণা) ঘোষণা করার পর তাদের দেশ ছাড়ার নির্দেশ দিয়েছে পেরু সরকার। স্থানীয় সময় শুক্রবার পেরুর পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘ফার্স্ট সেক্রেটারি পাক মায়োং চোল ও থার্ড সেক্রেটারি জি হায়োককে পার্সোনা নন গ্রাটা ঘোষণা করার সিদ্ধান্ত উত্তর কোরিয়ার দূতাবাসকে অবহিত করেছে পেরু সরকার, যারা উল্লিখিত কূটনৈতিক মিশনে কর্মকর্তা হিসেবে নিযুক্ত রয়েছেন।’

দুই কূটনীতিককে আগামী ১৫ দিনের মধ্যে লাতিন আমেরিকার দেশ পেরু ত্যাগের নির্দেশ দিয়েছে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। কূটনীতিকদের বিরুদ্ধে কোনো দেশের ব্যবস্থা নেওয়ার ক্ষেত্রে পার্সোনা নন গ্রাটা খুবই গুরুতর পদক্ষেপ, যদিও এ ক্ষেত্রে আন্তর্জাতিক আইন অনুযায়ী কূটনীতিকরা দায়মুক্তি পেয়ে থাকেন।

দুই কূটনীতিকের বিরুদ্ধে কূটনৈতিক মিশনের বাইরে কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগ পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার পর পেরু সরকার তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে বলে জানানো হয়েছে। মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, এই কারণ ছাড়াও উত্তর কোরিয়া জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের প্রস্তাবসমূহের লঙ্ঘন করাও কূটনীতিকদের বহিষ্কারের অন্যতম কারণ।

জাতিসংঘ ও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা উপেক্ষা করে সাম্প্রতিক সময়ে পিয়ংইয়ং বেশ কয়েকটি ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করার প্রতিক্রিয়ায় শুক্রবার সর্বসম্মতিতে উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে আরো কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ। এরপর উত্তর কোরিয়ার কূটনীতিকদের বহিষ্কারের ঘোষণা দেয় পেরু সরকার।

ভবিষ্যতে উত্তর কোরিয়াকে পরমাণু কার্যক্রম থেকে বিরত রাখতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রস্তাবিত নিষেধাজ্ঞায় ভোট দেয় চীন, রাশিয়াসহ নিরাপত্তা পরিষদের ১৫ সদস্যই। নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হলে উত্তর কোরিয়ায় ৯০ শতাংশ পরিশোধিত পেট্রোলিয়াম রপ্তানি বন্ধ হবে। নিষেধাজ্ঞায় আরো বলা হয়েছে, বিদেশে কর্মরত উত্তর কোরিয়ার সব নাগরিককে আগামী ২৪ মাসের মধ্যে দেশে ফিরে যেতে হবে।

২৯ নভেম্বর উত্তর কোরিয়া বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করার পর জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের অস্থায়ী সদস্য পেরু এর কঠোর নিন্দা করে। এর আগেও পিয়ংইয়ংয়ের পরমাণু কার্যক্রমের সমালোচনা করে দেশটি। সেপ্টেম্বর মাসে উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কার করে পেরু।

তথ্যসূত্র : আলজাজিরা অনলাইন

sentbe-top