sentbe-top

মৃত্যুর ঠিক ১৮ ঘন্টা আগে বিয়ে

bride-cancerক্যান্সার আক্রান্ত হেদার মোসার চেয়েছিলেন তার ভালোবাসার মানুষটিকে বিয়ে করতে। কিন্তু মরণব্যাধি ক্যান্সার তার জীবনের বিশেষ সময়টুকুও কেড়ে নিতে চাইছিল। তাই মৃত্যুর ঠিক ১৮ ঘন্টা আগে বিয়ে করে জিতে যান হেদার। সূত্র গ্লোবাল নিউজ।

ক্যান্সার তার জীবন কেড়ে নিলেও ভালোবাসার মানুষটিকে নিজের করে নিতে পেরেছিলেন হেদার। যুক্তরাষ্ট্রের কানেকটিকাটের বাসিন্দা হেদার মোসার তার বাগদত্তা ডেভ মোসারকে ২০১৭ সালের শেষে ৩০ ডিসেম্বর বিয়ে করার পরিকল্পনা করেছিলেন।

কিন্তু, এ জুটি অনুভব করলেন ওই সময়েই হয়ত তারা পারবেন না। তাই গত ২২ ডিসেম্বর হাসপাতাল চার্চে হাতে হাত রেখে সারাজীবন এক থাকার প্রতিজ্ঞা করেন। ১৮ ঘন্টা পরেই ক্যান্সার আক্রান্ত হেদার মোসার মারা যান।

করুণ কিন্তু অভিনব এই বিয়ের ছবিগুলো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করেন কনের বান্ধবী ক্রিস্টিনা কারাস। এরপরেই ভাইরাল হয়ে যায় ছবিগুলো। ক্রিস্টিনা লিখেন, এ দুইজন এক হওয়া যেন নির্ধারিত ছিল।

কনে হেদারের স্তন ক্যান্সার ধরা পড়ে ২০১৬ সালের ২৩ ডিসেম্বর। একই দিনে ডেভ তাকে ভালোবাসার প্রস্তাব দেওয়ার পরিকল্পনা করেন। জীবনকে পরিবর্তন করে দেওয়া এই খবর জেনেও ডেভ তার প্রস্তাব থেকে সরে দাঁড়ায়নি।

ডেভ বলেন, আমি নিজেকে বলি হেদারকে জানতে হবে এ রাস্তায় সে একা হাঁটবে না। তাই তারা দুজনে মিলে ক্যান্সারের বিরুদ্ধে লড়ার সিদ্ধান্ত নেন।

তবে দুর্ভাগ্যবশত ক্যান্সার মস্তিষ্কে ছড়িয়ে পড়ে। এরপর হেদারকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়। ডাক্তার জানতেন, ডেভ-হেদার জুটি ২০১৭ সালের ৩০ ডিসেম্বর বিয়ে করতে চান। তাই তিনি সাফ জানিয়ে দেন, হেদারের হাতে সময় খুব কম। ডেভও বুঝতে পেরেছিলেন, তাদের বিয়েই হবে সত্যিকারের একসঙ্গে থাকার একমাত্র মুহুর্ত।

মারা যাওয়ার আগে হেদার তার বিয়ের শপথগুলোই বলতে পেরেছিলেন। হেদার বলেছিলেন, আমি শেষ পর্যন্ত লড়তে চাই। এবং তিনি লড়েছেনও। একই মন্ত্রে উজ্জীবিত হয়ে বর ডেভও জীবনের শেষ পর্যন্ত লড়ে যেতে চান।

sentbe-top