sentbe-top

ধুমপানে বাধা নেই যে গ্রামে!

kids-smokingসিগারেটের মোড়কে লেখা থাকে, “সংবিধিবদ্ধ সতর্কীকরণ: ধূমপান স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর”। আর চিকিৎসাবিজ্ঞান মতে, ধূমপান ক্যান্সারের কারণ। তাই সাধারণ বয়সী মানুষদেরও ধূমপান থেকে বিরত থাকতে বলা হয়। কিন্তু পৃথিবীর বুকেই একটি জায়গা আছে যেখানকার বাসিন্দাদের মধ্যে বয়োঃজ্যেষ্ঠ্য তো অবশ্যই; ধূমপান করে শিশুরাও।

পর্তুগালের ভেল দে সেলগুইরো গ্রামের অধিবাসীরা নিজেরাই তাদের শিশুদের ধূমপানে উৎসাহিত করে থাকেন। পাঁচ বছর বয়স হলেই নিজেদের সন্তানদের সিগারেটের প্যাকেট কিনে দেন এ গ্রামের অভিভাবকেরা। কারণ ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর গ্রামে ধূমপানই যে উৎসব পালনের রীতি!

তবে ধূমপান শুরু হয় বিশেষ এক উৎসবের পর। সে গ্রামে বড়দিন উপলক্ষে আয়োজন করা হয় “কিংস ফিস্ট” বা “রাজার ভোজনের”। বড়দিনের পর বর্ষ বরণের পরের শুক্রবার শুরু হয়ে এ উৎসব চলে শনিবার পর্যন্ত। এ অনুষ্ঠানে একজনকে “রাজা” সাজানো হয়। এ রাজাই সকলের মাঝে মদ এবং খাবার তুলে দেয়।

পর্তুগালের রাষ্ট্রীয় আইন অনুযায়ী ১৮ বছর বয়সীদের নিচে ধূমপান অবৈধ। তবে এ আইন চলে না ভেল দে সেলগুইরো গ্রামে। তবে বহু প্রাচীন এ রীতির সঠিক অর্থ জানা নেই গ্রামবাসীদেরও।

এই গ্রামের বাসিন্দা গিলর্মমিনা মাতু বলেন, কেন ধূমপান করা হয়, তা বলতে পারব না। তবে এতে ক্ষতির কিছু নেই। ওরা সত্যিকারের ধূমপান করে না। ধোঁয়া টানার সঙ্গে সঙ্গে ছেড়ে দেয়। আর শুধুমাত্র উৎসবের দিনগুলিতে তো শিশুরা ধূমপান করে। বছরের বাকি সময়ে ওরা সিগারেট চায় না।

শোনা যায়, একসময়ে বছরভর ধূমপান এড়িয়ে চলতেন পর্তুগালের বাসিন্দারা। কিন্তু, শীত পড়লেই শুরু হয়ে যেত ধূমপান। বস্তুত, বছরের এই সময়ে তাঁরা এমন অনেক কাজই করতেন, যা বছরের অন্য সময়ে করা যেত না।

আর বহু যুগের আগের সেই রেওয়াজই এখনও রয়েছে গিয়েছে ভেলে ডি সালগুইয়েরো গ্রামে। সেখানে কিংস ফেস্ট উপলক্ষে আজও ধূমপান করেন ছেলে-বুড়ো সকলেই। বাদ যায় না শিশুরাও।

সৌজন্যে: অর্থসূচক

sentbe-top