sentbe-top

কানাডায় অ্যাওয়ার্ড পাচ্ছেন বাংলাদেশি ব্যবসায়ী মনিরুজ্জামান

monirujjamanকানাডার আলোচিত ট্রান্সফরমেশন অ্যাওয়ার্ড পাচ্ছেন বাংলাদেশি ব্যবসায়ী মনিরুজ্জামান। টরেন্টো প্রবাসী মনিরুজ্জামানকে উদ্ভাবনী সফল ব্যবসায়ী হিসেবে এই পুরস্কারের জন্য নির্বাচিত করা হয়েছে।

তার সঙ্গে এই পুরস্কার আরও পাচ্ছেন- গায়িকা সুশান আগলুকাকার্ক, চলচ্চিত্র পরিচালক দীপা মেহতা, রাজনীতিক ডেভিড মিশেলসহ কানাডার খ্যাতিমান ১২ জন। ১৫ জুন ‘কানাডার ট্রান্সফরমেশন গ্রুপ’ টরেন্টোর গ্র্যান্ড লাইব্রেরিতে সম্মানজনক এই পুরস্কার তুলে দেবে নির্বাচিতদের হাতে।

কানাডার এশিয়া প্যাসিফিক গ্রুপ লিমিটেড, বুলিয়ন মার্ট ও সিলভার-গোল্ড এক্সপ্রেসেন প্রতিষ্ঠাতা মনিরুজ্জামানের বাড়ি গোপালগঞ্জে। তিনি প্রবাসে প্রকাশিত প্রথম বাংলা পত্রিকা ‘দ্য প্রবাসী’র প্রধান সম্পাদক।

মনিরুজ্জামানের শিল্প প্রতিষ্ঠান প্রায় ৩০ বছর ধরে বৈশ্বিক খনিজ সম্পদ বাজারজাতকারী প্রতিষ্ঠান ‘গ্লোবাল মাইনস টু মার্কেট’হিসেবে বাণিজ্য করছে।

এসব প্রতিষ্ঠানে প্লাটিনাম, স্বর্ণ, রৌপ্য ও প্যালাডিয়াম পরিশোধন ও উৎপাদন করা হয়। ভারত, সিঙ্গাপুর, হংকং, মধ্যপ্রচ্য, যুক্তরাষ্ট্রসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বাণিজ্য রয়েছে। মনিরুজ্জামানের বুলিয়ন মার্ট মুল্যবান ধাতবের কয়েনও উৎপাদন এবং বিক্রি করে আসছে। অন্টারিও প্রদেশে রয়েল কানাডিয়ান মিন্টের নামকরা ৬ জন ডিলারের একজন তিনি।

সমাজসেবক হিসেবেও তার খ্যাতি রয়েছে। কানাডা এবং বাংলাদেশে বেশ কিছু দাতব্য প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে তিনি যুক্ত। মনিরুজ্জামান ১৫ বছর কানাডা-বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি এবং কানাডা-বাংলাদেশ বিজনেস কাউন্সিল-এর সহ-সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছেন।

এছাড়া বাংলাদেশের এক্সপোর্ট প্রমোশন ব্যুরোর (ইপিবি) মাধ্যমে সর্বোচ্চ রফতানির জন্য উদ্যোক্তা পুরস্কারও পেয়েছেন তিনি। সম্মানজনক এ অর্জনে মনিরুজ্জামানকে অভিনন্দন জানিয়েছেন, কানাডা প্রবাসী বাংলাদেশিরা।

সৌজন্যে- জাগো নিউজ

sentbe-top