sentbe-top

ঢাকাতে আমেরিকার মতো ফোর–জি সেবা পাচ্ছি : জয়

joyঢাকাতে বসেই ঠিক আমেরিকার মত ফোর-জি ইন্টারনেট সেবা পাচ্ছেন বলে ফেসবুকে এক স্ট্যাটাস দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়।

মঙ্গলবার বিকেলে সজীব ওয়াজেদ জয় তাঁর ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে দেয়া স্ট্যাটাসে লিখেছেন, ‘এই মুহূর্তে আমি ট্রাফিকে আটকে আছি, কিন্তু ঢাকাতে বসেই ঠিক আমেরিকার মতোই ফোর-জি ইন্টারনেট সেবা পাচ্ছি। আমরা কয়েকমাস আগে ফোর-জি সেবা চালু করলেও ইতোমধ্যেই কাভারেজ বেশ ভালো বলে মনে হচ্ছে। এর জন্য টেলিকম কোম্পানিগুলোকে আমি ধন্যবাদ জানাই। আওয়ামী লীগ সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নে আরেকটি মাইলফলক অর্জন। আগামীকাল সকালে আমরা ফাইভ-জি প্রযুক্তির পরীক্ষামূলক প্রদর্শনী করবো। চোখ রাখুন।’

উল্লেখ্য, আজ সকালে রাজধানীর একটি হোটেলে ফাইভ-জি সামিটের আয়োজন করা হয়েছে। বাংলাদেশ সরকার, হুয়াওয়ে এবং রবি যৌথভাবে এই আয়োজন করেছে। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি থাকবেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও প্রযুক্তি-বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়। অনুষ্ঠান আরও উপস্থিত থাকবেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার এবং আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

joy-fbএদিকে ফাইভ-জি’র পরীক্ষা চালাতে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন-বিটিআরসি হুয়াওয়েকে এক সপ্তাহের জন্য স্পেকট্রাম বরাদ্দ দিয়েছে। বিটিআরসির সর্বশেষ কমিশন বৈঠকে এ জন্য অনুমোদন দেয়া হয়। হুয়াওয়ে অবশ্য তিন মাসের জন্য স্পেকট্রামের আবেদন করেছিল।

সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, এর মধ্যে এ জন্য প্রস্তুতি চলছে জোরেশোরে। চীন থেকে হুয়াওয়ে প্রযুক্তি আনার আনুষ্ঠানিকতা শুরু করেছে। বিভিন্ন উন্নত দেশে এরই মধ্যে পরীক্ষামূলকভাবে ফাইভ-জি চলছে। চলতি বছরের শেষের দিকে অনেক বড় শহরে এর বাণিজ্যিক ব্যবহার শুরু হবে।

তবে বাংলাদেশের বাজার এখনও ফাইভ-জি প্রযুক্তি ব্যবহারের পর্যায়ে যায়নি বলে মনে করেন টেলিকম খাত সংশ্লিষ্টরা। তারা বলছেন, পঞ্চম প্রজন্মের প্রযুক্তি সেবা ব্যবহারে আরও অন্তত চার-পাঁচ বছর অপেক্ষা করতে হবে।

sentbe-top