sentbe-top

ওমানের ফুটপাতে সবজি বিক্রি করছেন বাংলাদেশিরা

oman‘নিয়মিত কাজ করেও ঠিকমতো বেতন পেতাম না। বাধ্য হয়েই ফুটপাতে সবজি বিক্রি করছি। ৩ লাখ টাকা দিয়ে ওমান এসেছি, না জেনে দেশটিতে ফ্রি ভিসায় এসে এখন ঠিকমতো খাবারের টাকাও জোগাড় করতে পারছি না।’ কথাগুলো বলছিলেন ওমান সালালাহ শহরে প্রবাসী বাংলাদেশি সবজি বিক্রেতা মুহম্মদ রিয়াজ।

মরুভূমির দেশ ওমান। দেশটিতে প্রায় ৮ লাখ প্রবাসী বাংলাদেশি রয়েছে। যাদের রেমিট্যান্সে বাংলাদেশের অর্থনীতির চাকা সচল রয়েছে। তারাই আজ নানা সমস্যায়। হাতেগোনা ২ শতাংশ লোক সরকারিভাবে গেছে। বাকিরা আত্মীয়-স্বজন অথবা দালালের মাধ্যমে। আবার কেউ না জেনে ফ্রি ভিসায় দেশটিতে এসে পড়েছেন বিপাকে।

রাজধানী মাস্কাট থেকে প্রায় ১১০০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত সালালাহ নামক একটি শহর। শহরটিতে প্রায় ৩ লাখ বাংলাদেশি কর্মরত। পরিবার নিয়ে আছেন তিন শতাধিক, শিশুদের পড়ালেখার জন্য বাংলাদেশি কোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নেই। ইন্ডিয়ান স্কুলই তাদের ভরসা।

sentbe-adসরেজমিনে দেখা গেছে, সালালায় বাঙালি অধ্যুষিত অঞ্চলে বাংলাদেশিরা ফুটপাতে সবজি, চা বিক্রি করছে; দেখলে মনে হবে এটা দ্বিতীয় বাংলাদেশ। ওমানে ফুটপাতে এভাবে দোকান দেয়া অবৈধ হলেও পরিবারের কথা চিন্তা করে ঝুঁকি নিয়ে ব্যবসা করছেন প্রবাসী বাংলাদেশিরা।

এসব ব্যবসায়ীর সঙ্গে আলাপ করে জানা গেছে, এদেশে কাজ নেই, আবার কেউ কাজ করেও নিয়মিত টাকা পাচ্ছে না। হাজারো সমস্যায় ফ্রি ভিসা নিয়ে দেশটিতে আসা বাংলাদেশিরা। তবে কোম্পানির মাধ্যমে যারা এসেছেন তারা মোটামুটি ভালো আছেন বলে জানান তিনি।

ওমানে ফ্রি ভিসায় না আসতে বাংলাদেশিদের অনুরোধ জানান দেশটিতে অবস্থানরত প্রবাসীরা। ফ্রি ভিসায় এলে কোনো ধরনের সুযোগ-সুবিধা পাওয়া যায় না। এক্ষেত্রে নিজের ব্যবস্থা নিজেদেরই করতে হয়। এছাড়া পুলিশি সমস্যা তো আছেই।

সৌজন্যে- জাগো নিউজ

sentbe-top