এবার ১২ ফুট লম্বা টেলিভিশন আনছে স্যামসাং

samsung-wall-tvবড়মাপের একটি টিভি বললে চোখের সামনে ভেসে উঠতে পারে ৫৬ কিংবা ৬৫ ইঞ্চির টেলিভিশন সেট। কিন্তু যদি বলা হয়, একটি টিভি ১২ ফুট লম্বা, বিশ্বাস হবে কি? না হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। কারণ এমন দ্বৈত্যাকার টিভির কথা তো আগে শোনা যায়নি। তবে এবার সকলকে চমকে দিতে ঠিক এত বড় টেলিভিশন সেটই বাজারে আনতে চলেছে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিষ্ঠান স্যামসাং।

স্যামসাংয়ের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, ১২ ফুট লম্বা বিরাট এই টিভিটির নাম ‘দ্য ওয়াল’। স্যামসাং চায় একে টিভি না বলে ডিসপ্লে বা স্ক্রিন বলা হোক। তবে শুধু আকারই যে এর ইউএসপি-এমনটা ভাবলে কিন্তু ভুল করবেন। আপনার সাধের মোবাইলে যা যা সুবিধা উপভোগ করেন, এই ডিসপ্লে-তেও সেসব ফিচারই রয়েছে। শুধু পার্থক্য একটাই। স্মার্টফোনের মতো একে সঙ্গে নিয়ে ঘোরা যাবে না।

বাড়ির দেয়ালে যাতে একদম ঠিকভাবে এটি ফিট করে যায় তার জন্য এর ঘনত্ব যথাসম্ভব পাতলা করারই চেষ্টা করেছে কোম্পানি। মাত্র ৩০ মিলিমিটার পুরু এই ডিসপ্লে।

গত জানুয়ারিতে লাস ভেগাসে আত্মপ্রকাশ করে ‘দ্য ওয়াল’। তারপরই ৬৫ ইঞ্চি এলজি টিভির সঙ্গে জোর লড়াই শুরু হয়ে যায় এই নেক্সট জেনারেশন টিভি সেটের। এর ডিসপ্লেতেই প্রথমবারের মতো ব্যবহৃত হলো মাইক্রো এলইডি।

দ্বৈত্যাকার এই টিভির সুবিধাও অনেক। ইচ্ছেমতো এর আকার ছোট বা বড় করে নেয়া সম্ভব। এর ব্রাইটনেস ও পিকচার কোয়ালিটি এবং ভলিউম এতটাই উন্নতমানের যে, এই টিভিতে একবার কিছু দেখলে আর অন্য টিভি দেখতে মন চাইবে না। টিভিটি এমনভাবে তৈরি যাতে আপনার ইলেকট্রিক বিল দেখে মাথায় হাত না পড়ে।

সব ঠিকঠাক থাকলে বিশ্বের বাজারে আগামী বছরই ইনিংস শুরু করবে ‘দ্য ওয়াল’। কিন্তু আসল কথাতো বলাই হয়নি। দুর্দান্ত ফিচারযুক্ত বিশালায়তন সেটটির মূল্য কত হবে? না, সে বিষয়ে এখনও কিছু জানায়নি কোম্পানি। শুধু বলেছে, আপনার আন্দাজ থেকে নাকি অনেকখানি কম দামেই কিনে ফেলা যাবে এই সেট। তবে হ্যাঁ, সেটটি কিনতে হলে আপনার ঘরের মাপ কিন্তু বড় হওয়া চাই-ই চাই।