বিমানে মাঝ আকাশে যাত্রীর মৃত্যু

indigoবিমানে করে বাড়ি থেকে চিকিৎসার জন্য অন্যত্র যাচ্ছিলেন ৩২ বছর বয়সী এক ব্যক্তি। মাঝ আকাশে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। যাত্রাপথ পরিবর্তন করে দ্রুত নিকটস্থ একটি বিমানবন্দরে বিমানটি অবতরণ করেন পাইলট। তবুও শেষমেষ বাঁচানো যায়নি তাকে। অবশেষে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন ওই যাত্রী।

ইন্ডিগো এয়ারলাইন্সের একটি বিমানে করে কলকাতা থেকে বেঙ্গালুরুতে যাচ্ছিলে রাজকুমার কর্মকার। ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মালদহ জেলার বাসিন্দা তিনি। তিনি বেঙ্গালুরুতে যাচ্ছিলেন চিকিৎসার জন্য। বিমানটি আনুমানিক সকাল পৌনে দশটায় কলকাতার নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ছেড়ে যায়।

বিমানটি ছেড়ে যাওয়ার ঠিক পৌনে এক ঘণ্টা পর তিনি জানান, তার শরীরে সমস্যা হচ্ছে। ফলে বিমানটি যাত্রাপথ কিছুটা পরিবর্তন করে ভারতের পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য ওড়িশার রাজধানী ভুবনেশ্বরের বিজু পটনায়ক আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে জরুরি অবতরণ করে। আনুমানিক সকাল সোয়া এগারোটার দিকে বিমানটি অবতরণের পর ভুবনেশ্বর ক্যাপিটাল হাসপাতালে তাকে ভর্তি করা হয়।

বিমানবন্দরে নামার সঙ্গে সঙ্গেই সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা তার প্রাথমিক চিকিৎসা শুরু করেন। এরপর উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ভুবনেশ্বরের ক্যাপিটাল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু সেখানে যাওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।